UP Shocker: ধর্ষণের অভিযোগ জানাতে আসা কিশোরীকে থানার মধ্যেই আবারও ধর্ষণ করল পুলিশ!
Rape | Representational Image (Photo Credits: Pixabay)

লখনউ, ৪ মে: ধর্ষণের অভিযোগ জানাতে গিয়ে থানার মধ্যে আবারও ধর্ষণের (Rape) শিকার হলেন এক কিশোরী। চমকে ওঠার মতো ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) ললিতপুরের (Lalitpur)। অভিযুক্ত স্টেশন হাউস অফিসার তিলকধারী সরোজ (Tilakdhari Saroj) পালিয়ে গিয়েছে। তাঁকে ইতিমধ্যেই সরোজকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রুজুও করা হয়েছে। অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে। এছাড়াও কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে অন্য তিনজনকেও গ্রেফতার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার মেয়েটির বাবার দায়ের করা এফআইআরে বলা হয়েছে, চারজন লোক কিশোরীকে ২২ এপ্রিল ভোপালে নিয়ে যায়, যেখানে তারা তাকে চারদিন ধরে ধর্ষণ করে। চারদিন পর অভিযুক্তরা কিশোরীকে গ্রামে ফিরিয়ে নিয়ে আসে এবং থানার কাছে ছেড়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। থানার ইনচার্জ তারপর মেয়েটিকে তার পিসির কাছে হস্তান্তর করেন। পরের দিন মেয়েটিকে বয়ান রেকর্ড করার জন্য থানায় ডাকা হয়েছিল। অভিযোগ, স্টেশন হাউস অফিসার তিলকধারী সরোজ মেয়েটিকে তার পিসির উপস্থিতিতেই থানায় একটি ঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। এফআইআর-এ মেয়েটির পিসির নামও অভিযুক্তের তালিকায় রয়েছে। আরও পড়ুন: PM Modi Europe Visit: আজ ডেনমার্কে দ্বিতীয় ভারত-নর্ডিক শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন নরেন্দ্র মোদী

ললিতপুর পুলিশ জানিয়েছে যে তারা তিলকধারী সরোজের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছে এবং পকসো আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। ললিতপুরের পুলিশ সুপার নিখিল পাঠক এক বিবৃতিতে বলেছেন, "এসএইচও-কে সাময়িক সাসপেন্ড করা হয়েছে। আমরা তাকে ধরার জন্য দল গঠন করেছি। একটি এনজিও মেয়েটিকে আমার অফিসে নিয়ে এসেছিল। সে তাদের বিস্তারিত জানিয়েছিল।"