TMC Delhi Protest: মঙ্গলবার তৃণমূলের দিল্লির কর্মসূচিতে রদবদল, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিরঞ্জন জ্য়োতির সঙ্গে সন্ধ্যায় সাক্ষাতে অভিষেকরা
Abhishek Banerjee (Photo Credits: X)

নতুন দিল্লি, ২ অক্টোবর: মঙ্গলবার দিল্লিতে তৃণমূলের বিক্ষোভ কর্মসূচিতে রদবদল হল। সোমবার গান্ধী জয়ন্তীতে দিল্লির একাংশে দাপালেন তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা। বিমান, ট্রেন-বাসে চড়ে পশ্চিমবাঙলা থেকে তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা দিল্লিতে যান কেন্দ্রীয় বঞ্চনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জাানতে। সোমবার ঘটনাবহুল দিনের শেষে তৃণমূলর সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্য়োপাধ্যায় ঘোষণা করলেন, আগামিকাল, মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী স্বাধ্বী নিরঞ্জন জ্য়োতির সঙ্গে সাক্ষাত করে রাজ্যের দাবিদাওয়া জানাবে তৃণমূলের প্রতিনিধি দল। কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রীর সঙ্গে সন্ধ্যা ৬টায় কৃষি ভবনে তৃণমূলের প্রতিনিধি দলের এই বৈঠক হবে বলে অভিষেক ঘোষণা করেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যদি রাজ্যের দাবি না মানেন তাহলে আরও বড় আন্দোলনে যেতে পারে তৃণমূল। মঙ্গলবার দুপুর ১টা থেকে যন্তরমন্তরে তৃণমূলের সাংসদ, রাজ্যের মন্ত্রী, সাংসদ, বিধায়ক সহ জনপ্রতিনিধি, নেতারা বিক্ষোভ দেখাবেন। দিল্লিতে তৃণমূলের প্রতিনিধি দল ১০০ দিনের টাকা ইস্যুতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করতে চেয়ে আগে থেকে সময় চেয়েছিলেন। কিন্তু তিনি এড়িয়ে যান বলে খবর।

রাজঘাটে তাদের ধরনা মঞ্চে বাধা, দলীয় কর্মীদের ওপর পুলিশের শারীরিক হেনস্থা অভিযোগ নিয়ে অভিষেক বললেন, " যেভাবে ওরা আমাদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার, খারাপ আচরণ করছে তাতে পরিষ্কার বিজেপি ভয় পেয়ে গিয়েছে। কেন্দ্র বাংলা থেকে টাকা নিয়ে চলে যাচ্ছে, কিন্তু রাজ্যকে কিছুই দিচ্ছে না। এই টাকাটা বাংলার মানুষের। তোমরা ইচ্ছাকৃতভাবে টাকাটা আটকে রেখেছো। কারণ বাংলার মানুষরা তোমাদের ভোট দেয়নি, প্রত্যাখান করেছে। আমাদের আন্দোলন কোনও বিশেষ রাজনৈতিক দলের নয়, মানুষের প্রতিবাদ এটা।" এরপর অভিষেক বলেন, " যদি মানুষ মনে করে ক্ষমতায় থাকা সরকার তাদের টাকা দিচ্ছে না, প্রকল্পের টাকা আটকে রেখেছে। তাহলে সরকার বদলে ফেলা দরকার। এটা করা থেকে কেউ আটকাতে পারবে না।"

প্রসঙ্গত, গত ২১ জুলাই তৃণমূলের শহিদ দিবসের মঞ্চে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা দলের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন, একশো দিনের টাকা সহ আটকে থাকা কেন্দ্রীয় প্রকল্পের বরাদ্দ অর্থ না দেওয়া হলে দিল্লিতে গান্ধী জয়ন্তীতে বড় বিক্ষোভ কর্মসূচি করবেন দলের নেতা-কর্মীরা।