Uttarkashi Tunnel Rescue: উত্তরকাশির সুড়ঙ্গ থেকে আটকে পড়া ৪১ জন শ্রমিককেই সফলভাবে উদ্ধার, দেশজুড়ে স্বস্তি
Uttarkashi Tunnel Collapse

দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান হল। গোটা দেশের প্রার্থনা, উদ্ধারকারী দলের অসম্ভব পরিশ্রম কাজে এল। রাত ৮টা ৪৫ নাগাদ উত্তরাখণ্ডের উত্তর কাশির সিল্কিয়ারা সুড়ঙ্গে আটকে থাকা ৪১ জন শ্রমিককেই সফলভাবে উদ্ধার করে আনা সম্ভব হল। রাত ঠিক ৭.৪৫ মিনিটে সুড়ঙ্গ থেকে প্রথম শ্রমিককে বের করে আনা হয়। তিনি কিছুটা অসুস্থ থাকলেও কথা বলেছেন বলে খবর।সারা ভারতের নজর উত্তরকাশির সেই সুড়ঙ্গেই। গত ১২ নভেম্বর, দিওয়ালির দিনে ভেঙে পড়েছিল উত্তরকাশীর নির্মীয়মাণ সেই সুড়ঙ্গ। উত্তরাখণ্ডের উত্তরকাশির সিল্কয়ারা সুড়ঙ্গের ভিতর থেকে একে একে বের করে আনা হয় আটকে পড়া শ্রমিকদের।

উদ্ধার হওয়া শ্রমিকদের মধ্যে কয়েকজনকে অ্যাম্বুলেন্স করে তখনই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কয়েক জনের সঙ্গে কথা বলেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামি।

দেখুন খবরটি

ম্যানুয়েল ড্রিলিং শেষে এদিন সন্ধ্যায়  ঢুকে পড়েন বিপর্যয় মোকাবিলা (NDRF)- দফতরের চার-পাঁচজন কর্মী। সুড়ঙ্গের ভিতর ঢোকানো হয় স্ট্রেচার। তাতে করেই একে একে বের করে আনা হচ্ছে গত ১৬ দিন ধরে আটকে থাকা ৪১ জন শ্রমিকদের দূরেই দাঁড়ানো অ্যাম্বুলেন্স। আটকে পড়া কোনও শ্রমিকের শারীরিক অবস্থা একেবারে খারাপ হয়ে পড়লে সেই অবস্থা মোকাবিলার জন্য সুড়ঙ্গের ঠিক পাশেই ব্যবস্থা করা হয়েছে মিনি হাসপাতালেরও। সুড়ঙ্গের ঠিক বাইরে একে একে বেশ কয়েকটি অ্য়াম্বুলেন্সও রাখা হয়েছে। সন্ধ্য়া ৬.৪৫ নাগাদ সুড়ঙ্গের কাছে আসেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামি। যে কোনও মুহূর্তে শ্রমিকদের উদ্ধার করে বের করা আনা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

দেখুন এক্স

 

দেখুন ভিডিয়ো

এবার উত্তরকাশির সুড়ঙ্গে যে বাঙালি শ্রমিকরা আটকে পড়েছেন,তাঁদের উদ্ধারে বিশেষ দল পাঠান বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী জানান, রাজদীপ দত্তর নেতৃত্বে একটি দলকে পাঠানো হয়েছে উত্তরকাশির সুড়ঙ্গে আটকে পড়া বাংলার শ্রমিকদের উদ্ধারের জন্য। উত্তরকাশির সিল্কিয়ারা সুড়ঙ্গে আটকে পড়া শ্রমিকদের মধ্যে যাঁরা বাংলার বাসিন্দা, তাঁদের যাতে কোনওভাবে অসুবিধা না হয়,তার জন্যই বিশেষ দল পাঠানো হয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।