হিজবুল জঙ্গির মৃত্যুবার্ষিকীতে কাশ্মীরে বনধ, স্থগিত অমরনাথ যাত্রা
অমরনাথের পথে(Photo Credit: PTI)

জম্মু ও কাশ্মীর, ৮ জুলাই: উপত্যকায় জঙ্গিবাদের পোস্টার বয় বুরহান ওয়ানি। ২০১৬-র ৮ জুলাই হিজবুল জঙ্গি বুরহান ওয়ানির ভবলীলা সাঙ্গ হয়ে যায়, সৌজন্যে কাশ্মীরের সেনাবাহিনী। সেই বুরহানের (Burhan Wani) মৃত্যু বার্ষিকীতে বনধ ডাকল কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদি সংগঠনগুলি। অশান্তির ভয়ে অমরনাথ তীর্থ যাত্রা একদিনের জন্য বন্ধ রাখল (Amarnath yatra suspended) উপত্যকার পুলিশ প্রশাসন। আগামী কাল মঙ্গলবার ফের তীর্থযাত্রা শুরু হবে বলে খবর। তিন বছর আগে অনন্তনাগ জেলার কোকেরনাগে এক সেনা জঙ্গি গুলির লড়াইয়ে খতম হয়ে যায় বুরহান ওয়ানি। আরও পড়ুন-স্ত্রীকে গণধর্ষণ করা হয়েছে, অভিযোগ জানাতে গিয়ে পুলিশের থার্ড ডিগ্রির শিকার নির্যাতিতার স্বামী

সে ছিল উপত্যকার বিচ্ছিন্নতাবাদি জঙ্গি গোষ্ঠী হিজবুলের কম্যান্ডার। তার মৃত্যুর পরেই বেশ কিছুদিনের জন্য নেতৃত্বের অভাবে হারিয়ে গিয়েছিল হিজবুল। পরে ফের শক্তি সঞ্চয়করে গোটা উপত্যকায় ত্রাসের রাজত্ব তৈরি করে। সংগঠনটির দাবি বিনা কারণে বুরহানকে মেরে ফেলেছে সেনা, এই তথ্য স্থানীয়দের মধ্যে ঢুকিয়ে দেওয়ার কসুর করেনি তারা। অনেকাংশে সফলও হয়। আজ সেই বুরহানের মৃত্যুতেই গোটা উপত্যকাজুড়ে বনধের আবহাওয়া। এদিকে গত ৩০ জুন থেকে শুরু হয়েছে অমরনাথ যাত্রা, চলবে আগামী ১৫ আগস্ট পর্যন্ত। কিন্তু এই বনধকে কেন্দ্র করে অশান্তির আশঙ্কায় এদিনের অমরনাথ যাত্রা স্থগিত রাখা হয়েছে।

দক্ষিণ কাশ্মীরে হিমালয়ের ৩৮৮০ ফুট উঁচুতে পবিত্র অমরনাথ তীর্থে প্রতি বছর যান হাজার হাজার পুণ্যার্থী। জম্মুর ভগবতী নগর বেস ক্যাম্প থেকে খুব ভোরে তীর্থযাত্রীদের নিয়ে রওনা হয় কনভয়। এদিন কাশ্মীর উপত্যকায় আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে আশঙ্কা করে কনভয় রওনা হতে দেওয়া হয়নি। এবছর অমরনাথ যাত্রা শুরু হয়েছে ৩০ জুন। এখনও পর্যন্ত ৩৬ হাজার ৩০৯ জন ভগবতী নগর বেস ক্যাম্প থেকে রওনা হয়েছেন। দু’টি পথে তাঁরা তীর্থস্থানে পৌঁছতে পারেন। একটি পথ গিয়েছে অনন্তনাগ জেলার পহেলগাঁও হয়ে। তার দৈর্ঘ্য ৩৬ কিলোমিটার। গান্দেরবাল জেলা থেকে বালতাল হয়েও যাওয়া যায়। সেই পথের দূরত্ব ১৪ কিলোমিটার। বলা বাহুল্য এবার অমরনাথ যাত্রার শেষদিন ১৫ আগস্ট পুণ্যার্থীদের মধ্যে রাখি বন্ধন উৎসবের মাধ্যমে যাত্রার ইতি ঘটবে।