Jammu & Kashmir: ভূস্বর্গে সেনাচৌকির আশপাশে ড্রোনের ওড়াউড়ি, রাত থেকেই সরগরম সাম্বা জেলা
প্রতীকী ছবি(Photo Credit: Pixabay)

জম্মু ও কাশ্মীর, ২ আগস্ট: উপত্যকায় (Jammu & Kashmir) ফের ড্রোনের ওড়াউড়ির ঘটনা ঘটল৷ এবার ঘটনাস্থল সাম্বা জেলা৷ জানা গেছে, রবিবার রাত সাড়ে ৮টা নাগাদ সাম্বা জেলায় কর্তব্যরত পুলিশকর্মীরা প্রথমে ড্রোনগুলি দেখতে পান। সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা সেখানে মোতায়েন ৯২ ইনফ্যান্ট্রি ব্রিগেডকে পুরো বিষয়টি জানান। অনেকটাই উঁচুতে উড়তে থাকায় ড্রোনের ঝাঁককে লক্ষ্য করে গুলি চালায়নি সেনা। সাম্বা জেলার আকাশে গতকাল রাতে চারটি ড্রোন উড়েছিল৷ এর মধ্যে একটি একেবারেই সেনা ছাউনির কাছে৷ প্রাথমিকভাবে সেনার ধারণা পাকিস্তান থেকে সীমান্ত পেরিয়ে উপত্যকায় নজারদারি চালাতে এসেছিল চারটি ড্রোন৷ তবে সীমান্তের ওপারে ঠিক কোথা থেকে ড্রোনগুলি ওড়ানো হয়েছিল, তা খতিয়ে দেখছে সেনাবাহিনী৷ আরও পড়ুন-Tokyo Olympics 2020: টোকিও অলিম্পিকে সাতটি মেডেল জিতে নিলেন অস্ট্রেলিয়ার সোনার মেয়ে এমা ম্যাকিয়েন

এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে একইভাবে সাম্বা সেক্টরে সন্দেহজনক পাক ড্রোন (Pakistani Drones) হানাদারি চালায়। বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি চালানোর পর ওই ড্রোনটি আকাশ থেকে উধাও হয়ে যায়। ওই ড্রোনের মাধ্যমে ফের পাকিস্তানি জঙ্গিরা বড়সড় কোনও নাশকতার ছক কষছে কি না, তা নিয়ে তল্লাশি শুরু করেছে সেনা বাহিনী। এদিকে বৃহস্পতিবার রাতে ড্রোনের নজরদারির পর ফের বারামুলার গ্রেনেড হামলার পর উপত্যকায় নজরদারি আরও বাড়ানো হয়েছে।

গত ১৫ জুলাই জম্মুর ওই বায়ুসেনা ঘাঁটি থেকে মাত্র ৩ কিলোমিটার দূরে সন্দেহজনক ড্রোনটিকে চোখে পড়ে। এরপরই তাকে নামিয়ে আনা হয়। সম্প্রতি জম্মুর বিমানঘাঁটির কাছে চলে আসে একটি ড্রোন (Drone)। বিস্ফোরক বোঝাই ড্রোনটিকে নীচে নামানোর আগেই বিস্ফোরণ ঘটে যায়। পরে জানা যায়, পাকিস্তানি জঙ্গি গোষ্ঠীদের তরফেই ওই ড্রোনটিকে ভারতীয় বায়ুসেনা ঘাঁটি লক্ষ্য করে পাঠানো হয়। ওই ঘটনার ৩ সপ্তাহের মধ্যে ফের আরও একটি সন্দেহজনক ড্রোন দেখা মেলায় বিষয়টি নিয়ে নিরাপত্তা আরও কঠোর করা হয়েছে।