‌সুরাটে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কোচিং সেন্টারের মালিক ও নির্মানকারী সংস্থার বিরুদ্ধে এফআইআর, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২০
সুরাটের কোচিং সেন্টারের অগ্‌নিকাণ্ড( Photo Credits: PTI)

২৫মে, ২০১৯:‌ ভয়ঙ্কর সেই অগ্নিকাণ্ড। সুরাটের কোচিং সেন্টারে (‌Surat Fire) অগ্নিকাণ্ডের ভিডিও ফুটেজ দেখে চমকে উঠেছেন তদন্তকারীরাও। আগুন থেকে বাঁচতে ছাদ থেকে ঝাঁপ দিচ্ছেন একের পর এক। বেরোনোর পথ নেই দাউ দাউ করে জ্বলছে সুরাটের তক্ষশীলা কমপ্লেক্সর (Takhshila Complex)পাঁচ তলার কোচিং সেন্টার।

এখনও পর্যন্ত ২০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছেন। মৃতদের অধিকাংশের বয়সই ২৫ বছরের কম। তাঁরা সকলেই কোচিং সেন্টারের পড়ুয়া। আগুন থেকে বাঁচতে লাফ দিয়ে আহত হয়েছেন ১৯ জন। তাঁদের হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। ঘটনা নিয়ে টুইট করে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি লিখেছে, ‘‌সুরাটের ঘটনা নিয়ে আমি অত্যন্ত উদ্বিগ্ন। যাঁদের মৃত্যুর খবর এসেছে, তাঁদের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা রয়েছে। যাঁরা আহত হয়েছে, তাঁদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করি। গুজরাটের সরকার ও স্থানীয় প্রশাসনকে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছি।’‌

কমপ্লেক্সের অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা ঠিক ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। ইতিমধ্যেই সরথনা (Sarthana) থানায় কোচিং সেন্টারের মালিক ভার্গব ভুটানি এবং বিল্ডিংটি নির্মাণকারী সংস্থার মালিক হর্ষ ভেখারিয়া ও জিগনেশের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৪ এবং ১১৪ ধারায় মামলা করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই কোচিং সেন্টারটি সিল করে দিয়েছে পুলিস। জরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানি ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। মৃতদের পরিবারকে চার লাখ টাকা করে আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করেছেন তিনি।