Rajasthan Shocker:প্রেমিকের সাহায্যে নিজের ৪ বছরের মেয়েকে খুন করে জঙ্গলে পুঁতে ফেলল মা
Representational Image | (Photo Credits: PTI)

কোটা, ১৭ মে: মর্মান্তিক ঘটনা রাজস্থানের (Rajasthan) আলওয়ার (Alwar) জেলায়। স্বামীর সংসার থেকে পালিয়ে এসে, ছোট্ট মেয়েকে নিয়ে প্রেমিকের কাছে থাকতে গিয়ে মর্মান্তিক কাণ্ড ঘটালো ২৫ বছরের এক মা। নিজের চার বছরের অসুস্থ মেয়ের চিকিৎসা করতে না চাওয়ায় প্রেমিকের সঙ্গে ষড়যন্ত্র করে তাকে গলা টিপে হত্যা করল সেই মা। তারপর প্রেমিকের সাহায্য নিয়ে মেয়ের মৃতদেহ জঙ্গলে পুঁতে দিল। কিছুতেই যাতে ধরা না পড়ে যায়, তাই প্রমাণ লোপাটের সব চেষ্টাই সে করেছিল। তবে শেষরক্ষা হল না। পুলিসের তদন্তের জাল ঠিক ধরে পড়তে হল সেই মা-কে। আরও পড়ুন: Sonu Sood Busts A Fake Donation Post: তাঁর নামে অনুদান সংগ্রহ করছে ভুয়ো সংস্থা! চোর ধরলেন সোনু সুদ

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, গত বছর ডিসেম্বরে টিনা যাদব (Tina Yadav) নামের ওই মহিলার স্বামী সুমিত যাদব পুলিসের কাছে তাঁর স্ত্রী ও মেয়ে নন্দিনীর নামে মিসিং ডায়েরি করে। মাস পাঁচেক বাদে জয়পুরে টিনার খোঁজ পায় পুলিস। জানা যায় টিনা তাঁর স্বামীকে ছেড়ে ৪৫ বছরের প্রেমিক প্রহ্লাদ সহায়ের সঙ্গে সংসার করছে। পুলিস তখন টিনাকে তার মেয়ের ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করলে জানায় সে তার দাদু, ঠাকুমার কাছে থাকে। কিন্তু পুলিস তদন্তের পর জানতে পারে টিনার মেয়ে নন্দিনী দীর্ঘদিন ধরেই নিখোঁজ। এরপরেই পুলিশের চাপে সত্যিটা বলে ফেলে টিনা।

সে জানায় তার মেয়ে অসুস্থ ছিল। সে ও তার প্রেমিক প্রহ্লাদ পরিকল্পনা করে নন্দিনীকে গলা টিপে খুন করে। পুলিশ এখন জঙ্গল থেকে নন্দিনীর দেহ উদ্ধার করতে বিশেষ দল পাঠিয়েছে। টিনা ও তার প্রেমিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। গত নভেম্বর থেকেই ৪৫ বছরের প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে এসে থাকছে টিনা।