Ahmedabad: করোনা ত্রাস, গুজরাটে হাসপাতালের রেফারের গেরোয় প্রাণ গেল বাঙালি অধ্যাপিকার
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: PTI)

আমেদাবাদ, ১৩ এপ্রিল: করোনা আক্রান্ত হয়ে ভিনরাজ্যে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু হল বাঙালি অধ্যাপিকার। মৃতের নাম ইন্দ্রাণী বন্দ্যোপাধ্যায় (Indrani Banerjee)। গত ১১ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত হন ইন্দ্রাণীদেবী। তিনি গুজরাট সেন্ট্রাল ইউনিভার্সিটি-র স্নায়ুবিজ্ঞান বিভাগের ডিন হিসেবে কর্মরত ছিলেন। আমেদাবাদ পুরনিগমের অধীনে শহরের এক বেরসকারি কোভিড হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি নেওয়া হয়নি। পুরসভার নিয়ম মেনে ‘সঠিক’ অ্যাম্বুল্যান্সে না আসায় রোগীকে ফিরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ওই হাসপাতালের বিরুদ্ধে। এই প্রসঙ্গে ইন্দ্রাণীদেবীর এক সহকর্মী জানিয়েছেন, “প্রথমে করোনা আক্রান্ত অধ্যাপিকাকে শহরের এক বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে সেখানে তাঁকে ভর্তি নেয়নি। এরপর গুজরাটের গান্ধীনগরের সরকারি হাসপাতালে যখন তাঁকে নিয়ে যাওয়া হল তখন অক্সিজেন ৯২-তে নেমেছে।” আরও পড়ুন-WB Assembly Elections 2021: ‘দিদি আপনি কি কাউকেই রেহাই দেবেন না?’ এবার মমতাকে বিঁধলেন রাজনাথ সিং

সেখানকার চিকিৎসকরা শহরের এক বড় বেসরকারি হাসপাতালে রোগিণীকে রেফার করে দেন। সেই হাসপাতালে ইন্দ্রাণীদেবীকে যখন ভর্তি করা হয় তখন তাঁর অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৬০-এ নেমে এসেছে। বুকের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে। সেই হাসপাতালে রোগীর জন্য একটি বাইপ্যাপ অক্সিজেন মেশিনের ব্যবস্থা করে হাসপাতাল। যদিও ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গেছে। এই অসম যুদ্ধে ইতি টানেন ইন্দ্রাণীদেবী। গোটা ঘটনায় হাসপাতালের অবব্যস্থার বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন মৃত অধ্যাপিকার ছাত্রছাত্রীরা।