Uttar Pradesh Assembly Elections 2022: বিজেপি-র হিন্দুত্ব কার্ডের যোগ্য জবাব দিতে দলীয় কর্মীদের নির্দেশ প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর
Congress leader Priyanka Gandhi Vadra (Photo Credits: Twitter)

রায়বেরেলি, ১৩ সেপ্টেম্বর: গোটা দেশে কংগ্রেসের (Congress) অবস্থা শোচনীয়। পশ্চিমবঙ্গ, অসম, দিল্লি সহ দেশের বেশ কয়েকটি রাজ্যে একেবারে মুছে গিয়েছে কংগ্রেস। হাতে গোণা যে কতগুলি রাজ্যে ক্ষমতায় তারা, সেখানেও গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে জরাজীর্ণ হাল। ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের (2024 Lok Sabha Elections) আগে কংগ্রেসের কাছে ঘুরে দাঁড়ানোর শেষ সুযোগ হল আসন্ন উত্তরপ্রদেশ নির্বাচন (Uttar Pradesh Assembly Election 2022)। উত্তরপ্রদেশে অন্তত কিং মেকারের জায়গায় থাকতে পারলেও কংগ্রেস কিছুটা হলেও নিজের জায়গা ফিরে পাবে। কারণ উত্তরপ্রদেশ তো শুধু আর একটা রাজ্য নয়, ইউপি হল দেশের ক্ষমতার ভরকেন্দ্র। সেখানে ভাল ফল করলে জাতীয় রাজনীতির চালিকাশক্তি থাকা যায়।

এমন একটা গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচনের আগে উত্তরপ্রদেশে মাটি কামড়ে পড়ে থাকতে চলেছে কংগ্রেসের সাধারণ সচিব প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভদরা (Priyanka Gandhi Vadra)। উত্তরপ্রদেশে এবার প্রিয়াঙ্কার নেতৃত্বেই হয়তো লড়তে চলেছে কংগ্রেস। আর ২০২২ বিধানসভা নির্বাচনের আগে আমেথি ও রায়বেরেলি থেকে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক শুরু করে দিয়েছেন সোনিয়া কন্যা। আরও পড়ুন: মোষের পিঠে চড়ে নির্বাচনের মনোনয়ন জমা দিতে এলেন প্রার্থী, দেখুন ভিডিয়ো

দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে প্রিয়াঙ্কা বললেন, " বিজেপি যেভাবে প্রোপাগান্ডা চালিয়ে মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে, আমাদের সেটার বিরুদ্ধে আম জনতাকে বোঝাতে হবে। কংগ্রেস সব ধর্মকে সম্মান করে। বিজেপি যে হিন্দুত্বের তাস খেলছে, তার যোগ্য জবাব আমাদের দিতে হবে।"সঙ্গে প্রিয়াঙ্কা বলেন, " হিন্দুত্ব আসলে কী তা মানুষকে বোঝাতে হবে। বিজেপি-র ঘৃণার রাজনীতির জবাবে আমাদের মানুষের কাছে যেতে হবে। মানুষের প্রশ্নের জবাব দিতে হবে। আমরাও পুজো করব, মন্দির দর্শন করব। কিন্তু ঘৃণার রাজনীতি করব না, আর যারা সেটা করবে তার জবাব দেবো। সবটাই হবে মানুষকে পাশে নিয়ে।" আগামী বছর উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনের আগে কংগ্রেস এখানে গোটা রাজ্যজুড়ে ১২ হাজার কিলোমিটার এলাকা জুড়ে প্রতিজ্ঞা যাত্রা করবে। গত শুক্রবার লখনউতে দলের নির্বাচনী প্যানেলের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন প্রিয়াঙ্কা।

উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেসের হাল একেবারে শোচনীয়। ২০১৯ লোকসভায় কংগ্রেসের দুর্গ আমেথিতেও হাতছাড়া হয়। খোদ রাহুল গান্ধী হেরে যান আমেথি থেকে। উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেসের একমাত্র দুর্গ এখন রায়বারেলি। সোনিয়া গান্ধী এখান থেকে জেতেন। একটা সময় যে রাজ্যে কংগ্রেসের দাপট ছিল, সেখানে এখন হাত চিহ্ন খুঁজে পাওয়া কঠিন হচ্ছে।

গত উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচন ২০১৭-এ বিজেপি ৩১২টি বিধানসভা কেন্দ্রে জিতে ক্ষমতায় আসে। সেখানে প্রধান বিরোধী দল সমাজবাদী পার্টি জেতে মাত্র ৪৭টি আসন। আর বিএসপি জেতে ১৯টি আসন। সেখানে কংগ্রেস মাত্র ৭টি আসনে জিতেছিল।