e-Rupi Inauguration: ডিজিটাল লেনদেনে বড় পদক্ষেপ, e-RUPI-র সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি
নরেন্দ্র মোদি

নতুন দিল্লি, ২ অগাস্ট: ডিজিটাল ও ক্যাশলেস আর্থিক আদানপ্রদান আরও শক্তিশালী হতে চলেছে। সোমবার ই-রুপি (e-Rupi) ক্যাশলেশ পেমেন্ট ব্যবস্থার উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)। এই পরিষেবার মাধ্যমে ক্যাশলেস এবং কন্টাক্টলেস পেমেন্ট করা যাবে। কিউআর কোড (QR code) এবং এসএমএস (SMS) দিয়ে আর্থিক লেনদেন করা যাবে।

স্বাস্থ্য খাত, দরিদ্রদের খাদ্য দিতে চাইলে, শিক্ষা খাতে ই-রুপির ভাউচার ব্যবহার করা যাবে। "এটি দেশে ডিজিটাল লেনদেন ও ডিবিটি বৃদ্ধিতে ই-রুপি ভাউচার ভূমিকা পালন করবে", বলে মন্তব্য প্রধানমন্ত্রীর। "ভারত আজ গোটা দুনিয়াকে দেখাচ্ছে টেকনোলজিকে ব্যবহার করতে কোনও দেশের থেকে কম যায় না। ভারত গত ৭ বছরে টেকনোলজিকে উন্নতির শিখরে পৌঁছে দিয়েছে।" এদিন প্রযুক্তির উন্নতির উদাহরণ দিতে গিয়ে ফাস্টট্যাগ, জেম, ডিজিলকারের উল্লেখ করেন তিনি। আরও পড়ুন, 'আগামী দেড় বছরে ত্রিপুরায় সরকার গড়বে তৃণমূল', চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন অভিষেক

গত কয়েক বছরে ভারতের প্রযুক্তি কতটা উন্নতি হয়েছে তার উদাহরণে আরও বলেছেন,"মহামারির কারণে দেশ আরও বেশি প্রযুক্তির ব্যবহার করছে। আরোগ্য সেতু দেশের সবথেকে বড় ডাউনলোড করা অ্যাপ। এখন আর সার্টিফিকেট পেতে গেলে হাতে লেখা কাগজের দরকার পড়ছে না। একটা ক্লিকেই যাওয়া যাচ্ছে সার্টিফিকেট।" চার বছর আগে তৈরি করা ভিম অ্যাপেরও উদাহরণ দেন তিনি। প্রতিটি রাজ্যকে ই-রুপি ব্যবহারের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

এটি একটি ই-ভাউচার যা মোবাইলের মাধ্যমে দেখা যাবে। ই-রুপি ব্যবস্থার জন্য কোনরকম ডিজিটাল পেমেন্ট অ্যাপ, ডেবিট কার্ড বা ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং পরিষেবার প্রয়োজন নেই। আর্থিক লেনদেন হওয়ার পরই পরিষেবাদানকারীর কাছে পেমেন্ট পৌঁছবে। কোনও বাধা ছাড়াই প্রিপেইড পদ্ধতি হওয়ায় এটি নির্দিষ্ট সময়েই অর্থ পৌছে দেবে। কতগুলি ভাউচার কেনা হচ্ছে, তা ট্র্যাক করা যাবে। ইতিমধ্যে আটটি ব্যাঙ্কে এই ব্যবস্থা চালু হয়ে গেছে। পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক, ব্যাঙ্ক অফ বরোদা, কানাড়া ব্যাঙ্ক, স্টেট ব্যাঙ্ক ও এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক।