নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ওয়ানাডের বন্যাদুর্গতদের আর্থিক সাহায্য করুন, পিনারাই বিজয়নকে চিঠি রাহুলের
পিনারই বিজয়নের সঙ্গে রাহুল গান্ধী(Photo Credit: Congress Instagram)

নতুন দিল্লি, ১ অক্টোবর: বন্যায় বিধ্বস্ত কেরালার বাসিন্দার কি আদৌ ক্ষতিপূরণ পেলেন। নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে তাঁর নির্বাচনী এলাকার বাসিন্দারা যাতে আর্থিক সাহায্য পান সেজন্য মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নকে চিঠি লিখলেন ওয়ানাডের (Wayanad) সাংসদ রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। এর আগে এই বিষয়ে বার্তালাপ করতে রাজধানী কেরালা হাউসে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখাও করেছিলেন কংগ্রেস সাংসদ। তিনি বলেন, আশাকরি সময়ের মধ্যেই রাজ্য সরকার বন্যদুর্গতদের আর্থিক সাহায্য দেবে। পিনারাই বিজয়নের (Pinarayi Vijayan) সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে রাহুল বলেন, ৭৬৬ নম্বর জাতীয় সড়কে লাগোয়া জঙ্গল এলাকায় রাতে আদৌ ট্রাফিক নিষিদ্ধ থাকবে কি না তানিয়ে আমাদের মধ্যে কথা হয়েছে। এছাড়া বন্যাদুর্গতদের ত্রাণ ও পুনর্বাসন নিয়েও আলোচনা হয়েছে।

বন্যার পর এতদিনে ওয়ানাডবাসীর প্রত্যেকেই যাতে ত্রাণ পেয়ে যান তানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী সঙ্গে আলোচনা করেছেন রাহুল গান্ধী। শুধু ত্রাণই নয়, তাঁদের আর্থিক ক্ষতিপূরণ ও পুনর্বাসন সঙ্গে বন্যা রুখতে রাজ্য সরকার কী ব্যবস্থা নিতে পারে ইত্যাদি বিষয়ে বার্তালাপ হয়েছে। এদিন সাধারণ সম্পাদককে বেনুগোপাল ও কোঝিকোড়ের কংগ্রেস সাংসদ এমকে রাঘবনকে সঙ্গে নিয়ে পিনারাই বিজয়নের সঙ্গে দেখা করতে যান রাহুল গান্ধী। রাহুলের প্রশ্নের উত্তরে বন্যা পরবর্তী কেরালার সরকারি পদক্ষেপের সংক্ষিপ্ত বর্ণনা করেন মুখ্যমন্ত্রী বিজয়ন। এমনকী বন্যাপরিস্থিতি রুখতে কী কী ব্যবস্থা নিচ্ছে তাঁর সরকার সেসব নিয়েও একপ্রস্থ আলোচনা হয়। আরও পড়ুন-দেশের ব্যাংকিং পরিষেবা নিরাপদ ও স্থীতিশীল গুজবে কান দেবেন না, আতঙ্কিত গ্রাহকদের ভরসা ফেরাতে রিজার্ভ ব্যাংকের বিজ্ঞপ্তি

এদিকে জঙ্গল এলাকায় ৭৬৬ নম্বর জাতীয় সড়কে রাতে অন্তত ট্রাফিক নিষিদ্ধে বিষয়টি নিয়ে এখনই কোনও রকম ভরসা দেননি পিনারাই বিজয়ন। তাঁর বক্তব্য, স্থানীয় বাসিন্দাদের জন্য বিকল্প রাস্তার বন্দোবস্ত করার পরেই এনিয়ে আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত নেওয়া যেতে পারে।