Congress MLA On Liquor Shop: 'মদ্যপানেই গলা থেকে বিদায় হবে করোনা', কী বললেন কংগ্রেস বিধায়ক?

জয়পুর, ১ মে: মদেই মরবে মারণ ভাইরাস এবার এমনই দাবি করলেন রাজস্থানের কংগ্রেস বিধায়ক। শুধু এটুকুই নয়, মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলতের কাছে মদের দোকানগুলির (liquor shops) খোলার দাবিও জানালেন তিনি। করোনার সংক্রমণ এড়াতে লকডাউনের জেরে সমস্ত মদের দোকানেও তালা পড়েছে। ওই বিধায়করে দাবি, লকডাউনের আওতা থেকে দোকানগুলি বাদ দেওয়া উচিত ছিল। কেননা মারণ ভাইরাস কোভিড-১৯ কে মারার ক্ষমতা রাখে মদ। ওই বিধায়কের নাম ভারত সিং কুন্দনপুর। ইতিমধ্যেই রাজ্যের মদের দোকানগুলি খোলার দাবি জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলতকে চিঠিও লিখেছেন ওই সাংসদ। চিঠিতে কুন্দনপুর জানিয়েছেন, “যখন মদ দিয়ে হাত ধুলে করোনাভাইরাস দূর হবে। তখন মদ্যপান করলে গলা থেকে এই মারণ ভাইরাস অবশ্যই বিদায় হবে।”

এদিকে আগেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, মদ্যপান করলে করোনাভাইরাস থেকে মুক্তির কোনও সম্ভাবনা নেই। বরং মদ্যপানে কমতে পারে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা। মহামারীর কারণে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে হেলথ গাইড প্রকাশ করা হয়েছে। তাতে স্পষ্ট বলা হয়েছে, উত্তেজনা অস্থায়ীভাবে কমাতে মদ্যপান সহযোগিতা করলেও অতিরিক্ত মদ্যপানে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা একেবারে নষ্ট হয়ে যাবে। আরও পড়ুন-Coronavirus Cases In India: শুক্রবার দেশ মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫ হাজার ৪৩, মৃত্যুমিছিলে ১,১৪৭ জন

কুন্দনপুর যেমন করোনা তাড়াতে মদ্যপানে জোর দিয়েছেন। ঠিক তেমনভাবেই মারণ ভাইরাসকে রুখতে রোগীকে কীটনাশক ইঞ্জেকশন দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত সপ্তাহে সাংবাদিক সম্মেলনে ট্রাম্প বলেছিলেন, কীটনাশক স্প্রে করলে এত তাড়াতাড়ি যদি ভাইরাস মরে যায়, তাহলে মানুষের শরীরে সরাসরি কীটনাশক ইঞ্জেক্ট করলে আরও দ্রুত ফল ফলবে। তাই এটা নিয়ে গবেষণা করা উচিত। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্টের বক্তব্য প্রকাশ্যে আসার পর ডেটল ও লাইজলের নির্মাতারা এই সব জীবাণু নাশককে মানুষের শরীরে ব্যবহারের ক্ষেত্রে কঠোরভাবে আপত্তি জানায়।