Republic Day 2024: মালদ্বীপের 'ভারত বৈরিতা'র মাঝেই প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের দীর্ঘ বন্ধুত্বের বার্তা মোদীকে
Prime Minister Narendra Modi (Photo Credits: ANI)

Republic Day 2024: প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদী এবং ভারতকে নিয়ে বিদ্বেষমূলক মন্তব্য করেছিলেন মালদ্বীপের নয়া সরকারের তিন মন্ত্রী। যার জেরে ভারত-মালদ্বীপ (Maldives-India Row) দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক তলানিতে এসে ঠেকেছে। এরই মাঝে আজ ভারতের ৭৫'তম সাধারণতন্ত্র দিবস (Republic Day 2024) উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানালেন সেই মালদ্বীপেরই প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম মোহাম্মদ  সোলিহ (Ibrahim Mohamed Solih)। বর্তমান চিনপন্থী মহম্মদ মইজ্জু সরকারের সঙ্গে চাপানউতোরের মাঝেই ভারতের সঙ্গে দীর্ঘ বন্ধুত্বের বার্তা দিলেন ইব্রাহিম। এক্স হ্যান্ডেলে ভারতের ৭৫'তম সাধারণতন্ত্রে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং সমগ্র দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে লিখেছেন, ভারতের সঙ্গে মালদ্বীপের যে অটুট বন্ধুত্বের সম্পর্ক দীর্ঘদিন বজায় ছিল তা যেন আরও দীর্ঘজীবী হয়।

মালদ্বীপের প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের শুভেচ্ছা ভারতকে... 

গত ৪ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী লাক্ষাদ্বীপ সফরে গিয়েছিলেন। প্রশাসনিক কাজের পাশাপাশি দ্বীপপুঞ্জের সমুদ্র সৈকতের নৈসর্গিক সৌন্দর্যও উপভোগ করেন তিনি। সেই ছবি মোদী শেয়ার করেন নিজের সোশ্যাল হ্যান্ডেলে। যা ঘিরেই মালদ্বীপ-ভারত সম্পর্কের টানাপড়েনের সূত্রপাত। মালদ্বীপের তিন মন্ত্রী ভারতকে 'অস্বাস্থ্যকর', 'অপরিষ্কার' দেশ হিসাবে কটাক্ষা করেন। সেই সঙ্গে আরও বলেন, পর্যটন ব্যবসায় মালদ্বীপকে কখনই টেক্কা দিতে পারবে না ভারত। যদিও তিন মন্ত্রীর মন্তব্যের দায় গ্রহণ করেনি মালদ্বীপ সরকার। ওই মন্তব্য মন্ত্রীদের ব্যক্তিগত মতামত দাবি করে ৩ মন্ত্রীকে বরখাস্তও করেছে মইজ্জু।

মালদ্বীপের 'ভারত বিরোধী' অবস্থানের জেরে এবার নিজের দেশের সমালোচিত হচ্ছেন নব নিযুক্ত প্রেসিডেন্ট মহম্মদ মইজ্জু। সদ্য তাঁর সরাক্র ঘোষণা করেছে মালদ্বীপে ঘাঁটি গাড়তে চলেছে চিনা গুপ্তচর জাহাজ। যা স্বাভাবিক ভাবেই উদ্বেগ বাড়িয়েছে ভারতের। মইজ্জুর  এই সিদ্ধান্তের পরেই আরও বেশি করে সরব হয়েছে বিরোধী দলগুলো। মালদ্বীপের 'ভারত বৈরিতা' আখেরে মালদ্বীপের জন্যে 'ক্ষতিকর' বলে আক্রমণ শুরু করেছেন বিরোধী নেতারা।