Prajwal Revanna: প্রজ্জ্বল রেভান্নার যৌন কেলেঙ্কারি মামলায় নয়া মোড়, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর নাতির বিরুদ্ধে জুড়ল ধর্ষণের অভিযোগ
Prajwal Revanna (Photo Credit: Twitter)

বেঙ্গালুরু, ৩ মেঃ লোকসভা ভোটের (Lok Sabha Elections 2024) মাঝে কর্ণাটকের (Karnataka) হাসান লোকসভা কেন্দ্রের বিদায়ী সাংসদ প্রজ্জ্বল রেভান্নার যৌন কেলেঙ্কারির ভিডিয়ো (Prajwal Revanna Sex Scandal) ফাঁস হতেই তোলপাড় কাণ্ড জাতীয় রাজনীতিতে। ঘটনায় এবার নয়া মোড়। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবেগৌড়ার (H. D. Deve Gowda) নাতি প্রজ্জ্বলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের (Rape) অভিযোগ দায়ের করল কর্ণাটক পুলিশের বিশেষ তদন্তকারী দল (SIT)। হাসানের এক মহিলার অভিযোগে ভিত্তিতে প্রাক্তন সাংসদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেছে সিট। এছাড়া তাঁর বাবা এইচডি রেভান্নার বিরুদ্ধে অপহরণের (Kidnap) অভিযোগে দ্বিতীয় এফআইআর নথিভুক্ত করা হয়েছে। যৌন হয়রানির মামলায় ইতিমধ্যেই রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

পুলিশের কাছে গোপন জবানবন্দি দিয়ে অভিযোগকারী মহিলা জানিয়েছেন, যৌন সম্পর্ক তৈরি করার জন্যে রেভান্না তাঁকে জবরদস্তি করেছিলেন। এর আগে প্রজ্জ্বল রেভান্না এবং তাঁর বাবা তথা কর্ণাটকের প্রাক্তন মন্ত্রী এইচডি রেভান্নার বিরুদ্ধে তাদের বাড়িতে কাজ করা একজন মহিলার পরিচারিকার অভিযোগের ভিত্তিতে যৌন হয়রানি, ভয় দেখানো, হামলা বা অপরাধমূলক বলপ্রয়োগের একটি মামলা দায়ের করা হয়েছিল। এবার প্রাক্তন মন্ত্রী পুত্রের বিরুদ্ধে দায়ের হল ধর্ষণের অভিযোগ।

যৌন কেলেঙ্কারির ভিডিয়ো ফাঁস হতেই দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর নাতি। ঘটনার তদন্তে কর্ণাটক পুলিশ গঠন করেছে বিশেষ তদন্তকারী দল। প্রজ্জ্বলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে সমন পাঠাতেই জানা যায় তিনি বেঙ্গালুরুতে নেই। রয়েছেন জার্মানিতে। এরপরেই বৃহস্পতিবার, ২ মে কর্ণাটকের হাসান লোকসভা কেন্দ্রের বিদায়ী সাংসদের বিরুদ্ধে লুক আউট নোটিস (Lookout Notice) জারি করেছে সিট। বিশ্বের সমস্ত অভিবাসন পয়েন্টে এই নোটিশ জারি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। জার্মানি থেকে দিন দুই আগে টুইট করেছিলেন রেভান্না। সেখানে লিখেছিলেন, আইনজীবী মারফত তদন্তকারী অফিসারদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন তিনি। তাঁর যৌন কেলেঙ্কারির ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর এটিই ছিল তাঁর প্রথম টুইট।