Rajasthan: বৌমাকে 'ডাইনি'র তকমা দিয়ে মারধরের অভিযোগ শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে
Rape/Representational Image (Photo Credit: PTI)

মহিলাকে 'ডাইনি' বলে সম্বোধন শ্বশুরবাড়ির লোকের। বৌমার গায়ে 'ডাইনি'র তকমা লাগিয়ে অকথ্য অত্যাচারের অভিযোগ উঠেছে শ্বশুরবাড়ির উপর রাজস্থানের  (Rajasthan) আজমের জেলায় বিয়ে হয় ২২ বছরের ওই তরুণীর। শ্বশুরবাড়িতে মেয়ের অত্যাচারের কথা আঁচ করতে পেরে পুলিশের দারস্ত হয় বাবা-মা।

আরও পড়ুনঃ  চলন্ত বাসে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু ২৬ জনের, নিহতদের পরিবার পিছু ৫ লক্ষ ক্ষতিপূরণের ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডের

পুলিশের কাছে অভিযোগে তরুণীর বাবা জানান, আজমের জেলার সরওয়াদ গ্রামের এক যুবকের সঙ্গে মেয়ের বিবাহ দেন তিনি। বিয়ের এক বছরের মধ্যে মেয়ে সন্তানসম্ভবা হয়। জন্ম দেয় পুত্র সন্তানের। কিন্তু সন্তান জন্মের পর থেকেই বৌমার প্রতি আচরণ ধীরে ধীরে বদলে যায় শ্বশুরবাড়ির সদস্যদের। শুরু হয় তাঁদের অত্যাচার। মেয়েকে বাপের বাড়িতে পাঠানোও বন্ধ করে দেন তাঁরা।

অভিযোগে নির্যাতিতা বাবা আরও জানান, গত ২৪ জুন তিনি খবর পান মেয়েকে 'ডাইনি' তকমা দিয়ে তাঁর চুল কেটে দিয়েছেন শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। মারধর করে তাঁকে। রাস্তাঘাটে পাথার ছুরে মারা হয়। পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যাওয়ার আগে ২৬ জুন পুলিশ নিয়ে মেয়ের শ্বশুরবাড়িতে হাজির ওই বাবা। মেয়ের পরিস্থিতি যেন নিজের চোখে বিশ্বাস করতে পারছেন না তিনি। পুলিশ এসে তরুণীকে উদ্ধার করে জাহাজপুর হাসপাতালে ভর্তি করান।

ঘটনা প্রসঙ্গে পুলিশ জানান, মহিলার বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে। সেই বয়ানের ভিত্তিতে শ্বশুরবাড়ির সদস্যদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এছাড়াও একটি পুলিশি দল গঠন করে সরওয়াদ গ্রামে পাঠানো হয়েছে বিস্তারিত তদন্তের জন্যে।