Odisha: মেয়ের বান্ধবীকে ক্রমাগত ধর্ষণ, আপত্তিকর ছবি ভাইরাল করার অভিযোগে গ্রেফতার বাবা
Rape Representational Image Photo Credit: File Image

মেয়ের বান্ধবীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ধর্ষণের পর নির্যাতিতার কিছু অশালীন ছবি তুলেছিলেন ওই অভিযুক্ত। এরপর তরুণীকে বারে বারে শারীরিক সম্পর্কের জন্যে জোর করতে থাকেন তিনি। তরুণী অস্বীকার করায় তাঁর সেই সমস্ত আপত্তিকর ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগও উঠেছে বান্ধবীর বাবার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে ওড়িশার (Odisha) জজপুর জেলায়। পানিকইলি থানায় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ধর্ষণ এবং আপত্তিকর ছবি ভাইরাল করার অভিযোগ দায়ের করেছে নির্যাতিতা।

পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযোগে নির্যাতিতা জানিয়েছে, গত বছর বান্ধবীর বাড়িতে তাঁর বাবার (৫৪) শারীরিক নিগ্রহের শিকার হয় সে। সেদিন বাড়িতে বান্ধবীর সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে সে জানতে পারে বান্ধবী এবং তাঁর মা কেউ বাড়িতে নেই। ছিল কেবল তাঁর বাবা। তাঁর মেয়ে একটু পরেই চলে আসবে জানিয়ে তরুণীকে ভিতরে আসতে বলেন তিনি। বাড়ির ভিতরে যেতে তাঁকে ধর্ষণ করেন অভিযুক্ত। যদিও এরপর পর মেয়ের বান্ধবীর কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন তিনি। অনুরোধ করে, সে যেন কাউকে কিছু না জানায়।

প্রথমবারের ঘটনা নির্যাতিতা কাউকে কিছু না জানালেও কয়েক মাস পর আবারও তাঁকে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত। এমনকি ধর্ষণের মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করেন তিনি। এরপর তরুণীকে তাঁর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক বজায় রাখার জন্যে ক্রমাগত হুমকি দিতে থাকে। এরই মাঝে নির্যাতিতার অন্যত্র বিয়ের ঠিক করে তাঁর পরিবার। সে কথা জানতে পারা মাত্রই বিয়ে ভাঙার জন্যে সেই সমস্ত আপত্তিকর ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দেয় অভিযুক্ত। সমাজমাধ্যমে তাঁর অশালীন ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সেই খবর এক বন্ধুর কাছ থেকে পেয়েই থানার দারস্ত হয় তরুণী। দায়ের করে অভিযোগ। যার ভিত্তিতে গ্রেফতার হয়েছে অভিযুক্ত ব্যক্তি।