Madhya Pradesh: স্কুল পিওনের শারীরিক নিগ্রহের শিকার সপ্তম শ্রেণির ছাত্র, গ্রেফতার
প্রতীকী ছবি

ভোপাল, ২৫ অগাস্টঃ নাবালক ছাত্রকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) সতনা জেলায়। সরস্বতী বিদ্যাপীঠ উচ্চ মাধ্যমিক আবাসিক স্কুলের এক পিওনের বিরুদ্ধে ওই স্কুলের ১৩ বছরের এক পড়ুয়াকে শারীরিক নিগ্রহের অভিযোগ উঠেছে। স্কুলে কর্মরত ওই অভিযুক্ত পিওনের নাম রবীন্দ্র সেম। বয়স ৪৩।

জানা গিয়েছে গত বছর ষষ্ঠ শ্রেণিতে ওই আবাসিক স্কুলে ভর্তি হয়েছিল রেওয়া গ্রাম নিবাসী নির্যাতিত ছাত্র। ঘটনার দিন অসুস্থবোধ করায় ক্লাসে হায়নি সপ্তম শ্রেণির পড়ুয়া। হস্টেলের ঘরেই বিশ্রাম নিচ্ছিল সে। ফাঁকা হস্টেলের সুযোগ নিয়ে নাবালক ছাত্রকে একা পেয়ে তার উপর শারীরিক নিগ্রহ চালায় অভিযুক্ত পিওন। ঘর ছেড়ে যাওয়ার আগে এই ঘটনা ফাঁস না করার জন্যে ছাত্রকে হুমকিও দিয়ে যায় সে।

বাড়িতে ফোন করে বাবা-মাকে সমস্ত ঘটনা খুলে বলে ছাত্র। ছেলের কাছ থেকে সমস্তটা শুনে স্কুলে ছুটে আসেন তাঁরা। কিন্তু স্কুলের অধ্যক্ষ তাঁদের সঙ্গে দেখা করতে রাজি না হওয়ায় থানার দারস্ত হয় নির্যাতিত নাবালকের পরিবার। সেদিন বিকেলেই থানায় অভিযোগ জানায় তাঁরা। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ এবং পকসো আইনের অধিনে স্কুল পিওনের বিরুদ্ধে মামলা রজু হয়। রাতেই পুলিশ গ্রেফতার করেছে অভিযুক্তকে।