Madhya Pradesh: বিবাদের জেরে অর্ধনগ্ন করে ব্যক্তিকে মার, মণিপুর-মালদার ছায়া মধ্যপ্রদেশেও
MP Half-Naked Man Beaten up (Photo Credits: Twitter)

ভোপাল, ২৪ জুলাইঃ ইন্টারনেট আশীর্বাদ নাকি অভিশাপ তা জানা নেই। কিন্তু এই ইন্টারনেটের দৌলতেই রাজ্য, দেশ কিংবা বিদেশের নানা প্রান্তের ঘটনা মুহূর্তে উঠে আসছে আমাদের প্রত্যেকের সামনে। এই যেমন কদিন আগে অগ্নিগর্ভ মণিপুরের (Manipur Violence) বর্বরতার একটি দৃশ্য উঠে এসেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা উত্তর-পুর্বের রাজ্যটিতে তিন মাস ধরে চলা অশান্তি প্রতীক হয়ে উঠেছে দুই মহিলাকে নগ্ন করে রাস্তায় হাঁটানোর ঘটনা। কিংবা মালদায় দুই আদিবাসী মহিলাকে চোর সন্দেহে অর্ধনগ্ন করে মারধর। সমস্ত ঘটনাই কেউ না কেউ ক্যামেরাবন্দি করছেন বিশ্ববাসীর জন্যে। তেমনই এক দৃশ্য সদ্য দেখা গেল নেটপাড়ায়। পরনে সাদা শার্ট পরা একটি লোককে এলোপাথাড়ি ঘুষি মারছেন অপর এক ব্যক্তি। কিন্তু লোকটির গায়ে জামা থাকলেও নিম্নাঙ্গে কিছু নেই। অর্ধনগ্ন ব্যক্তিটির হাত দুটো পিছনে দড়ি দিয়ে বাধা।

ঘটনাটি মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) রেওয়া জেলার। আর এই ভিডিয়োটি দু বছর আগের করা। ২০২১ সালের এই ভিডিয়ো হঠাৎই গত সপ্তাহে উঠে আসে সমাজমাধ্যমের পাতায়। ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই গ্রেফতার হয়েছেন অভিযুক্ত জহর সিংহ (৫৫)। ঘটনা প্রসঙ্গে রেওয়া পুলিশ সুপার জানান, নির্যাতিতা ব্যক্তিটি (৪৩) উচ্চবর্নের। জমি নিয়ে বিবাদের জেরে আদিবাসী গোষ্ঠীর জহরের নিগ্রহের শিকার হন তিনি। গ্রামের সরকারি স্কুলে ক্লার্কের পদে কর্মরত অভিযুক্ত জহরের স্ত্রী গ্রাম প্রধান।

জহরের বিরুদ্ধে অভিযোগ, জমি নিয়ে অশান্তির জেরে উচ্চবর্নের ওই ব্যক্তিকে অপহরণ করেন তিনি। অর্ধনগ্ন করে হাত বেধে মুখে একে পর এক ঘুষি মারতে থাকেন। তাঁর পায়ের জুতো মুখে করে ব্যক্তিকে তুলতে বলেন। অভিযুক্ত জহর এবং ঘটনার সঙ্গে যুক্ত আরও দুজনের বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে এফআইআর।