Madhya Pradesh: ভাই-বোনের মধ্যে ‘অবৈধ’ সম্পর্ক, গ্রামবাসীর সন্দেহে গাছের সঙ্গে বেঁধে বেধড়ক মার
Screenshot of the Incident (Photo Credits: Twitter)

খাণ্ডোয়া, ৯ এপ্রিলঃ ভাই-বোনের মধ্যে ‘অবৈধ’ সম্পর্ক রয়েছে এমন সন্দেহ করে তাঁদের গাছের সঙ্গে বেঁধে বেধড়ক মারল গ্রামবাসী। মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) খান্ডোয়া জেলার ঘটনায় নেটপাড়ায় শোরগোল। গ্রামবাসীর এমন নির্মম আচরণে নিন্দায় ফুঁসছে নেটাগরিক।

এক জাতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্য অনুসারে, মহিলা কলাবতীর স্বামী গ্রামবাসীদের রটিয়ে বেরিয়েছেন, তাঁর স্ত্রীয়ের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক হয়েছে তুতো ভাই জ্ঞানলালের। ঘটনার দিন কলাবতীর সঙ্গে দেখা করতে আসেন তাঁর তুতো ভাই। সেদিন কলাবতীর স্বামী বাড়ি ছিলেন না। দুই ভাই বোন মিলে বাড়ির উঠোনে বসে গল্প করছিলেন, এমন সময়ে হঠাৎ একদল গ্রামবাসী এসে হাজির হয় তাঁদের বাড়িতে। দুজনের চরিত্র নিয়ে প্রশ্ন তোলে। নানা কুকথা বলতে শুরু করে।

এরই মাঝে গ্রামবাসী জোট বেঁধে ভাই-বোনকে গাছের সঙ্গে বেঁধে লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারে। গ্রামবাসীদের তাঁরা বারে বারে বোঝানোর চেষ্টা করেন, তাঁরা সম্পর্কে ভাই-বোন হয়। তাদের মধ্যে অন্য কোন সম্পর্ক নেই। তাঁদের ভুল বোঝা হচ্ছে। কিন্তু কে কার কথা শোনে। মারধর চালিয়ে যায় গ্রামের লোকজন।

দেখুন সেই ভিডিয়ো... 

ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে উদ্ধার করে কলাবতী এবং জ্ঞানলালকে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁদের হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করে নির্যাতিতরা। তাঁদের অভিযোগের ভিত্তিতে ৩ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনার সঙ্গে যুক্ত বাকি অভিযুক্তদের খোঁজ চানান হচ্ছে এবং ঘটনার বিশদ তদন্তও করা হচ্ছে, পুলিশের তরফে এমনটাই জানানো হয়েছে।