Lucknow Shocker: বচসাকারীদের হাত থেকে ছেলেকে বাঁচাতে চেয়েছিলেন, মাটিতে পড়ে মৃত্যু চা দোকানির
Heart Attack (Photo Credits: Pixabay)

লখনউ, ২৭ সেপ্টেম্বর: ছেলের সঙ্গে স্বর্ণকারের (jeweller) বচসা মেটাতে গিয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত (massive heart attack) হয়ে মৃত্যু হল এক চা দোকানির৷ রবিবার সন্ধ্যায় যখন ঝামেলা চলছে তখন আচমকাই মাটিতে পড়ে যান ওই দোকানি৷ প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন৷ তড়িঘড়ি তাঁকে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন৷ এই ঘটনার পরেই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়৷ স্থানীয় ব্যবসায়ীরা সংশ্লিষ্ট সোনার দোকানের সামনে জড়ো হয়ে অভিযুক্ত স্বর্ণকার, তার ভাই ও দোকানের কর্মীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন৷ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান লখনউ(Lucknow) নর্থ জোনের অতিরিক্ত ডেপুটি পুলিশ কমিশনার প্রাচী সিং৷ আরও পড়ুন-Delhi: ভারত বনধে দিল্লিতে কড়া নিরাপত্তা, সীমান্তে ব্যাপক যানজট (দেখুন ছবি)

এই মৃত্যুর ঘটনায় স্বর্ণকার অলোক তার ভাই-সহ মোট আটজনের বিরুদ্ধে হত্যার মামলা দায়ের করা হয়৷ পুলিশ জানিয়েছে, স্বর্ণকার অলোক জৈনের অভিযোগ মৃত নরেশ গুপ্তার ছেলে নিখিলের সঙ্গে তাঁর মেয়ের সম্পর্ক রয়েছে৷ ঘটনার দিন একটা হেস্তনেস্ত করে ভাই পাপুকে নিয়ে নিখিলদের চায়ের দোকানে আসেন অলোক জৈন৷ কীকরে তাঁর মেয়ের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ায় নিখিল, তার ব্যাখ্যা চায়৷ শেষমেশ নিখিলের বিরুদ্ধে মেয়েকে ফাঁসানোর অভিয়োগ আনেন দুই ভাই৷ সামান্য বচসা থেকে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় শুরু হতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছান নরেশ গুপ্তা৷   পরিস্থিতি নিয়্ন্ত্রমে আনতে চেষ্টা করেন৷ সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে ধাক্কা মেরে সরিয়ে দেওয়া হয়৷ মাটিতে পড়েই অচেতন হয়ে যান নরেশ গুপ্তা৷ তড়িঘড়ি তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গেল কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন৷

প্রাচী সিং জানিয়েছেন, মৃত নরেশ গুপ্তার দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে৷ এবং অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারির জন্য তল্লাশি শুরু হয়েছে৷