Jharkhand: জমি কেলেঙ্কারিতে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে সহায়তা, হেমন্তের পর গ্রেফতার ঝাড়খণ্ড রাজস্ব বিভাগের পুলিশকর্মী
Hemant Soren (Photo Credits: Facebook)

রাঁচি, ৩ ফেব্রুয়ারিঃ বেআইনি ভাবে জমি অধিগ্রহণ মামলায় বুধবার ইডির হাতে গ্রেফতার হয়েছেন ঝাড়খণ্ডের (Jharkhand) প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন (Hemant SorenI। এবার সেই মামলায় উঠে এল ঝাড়খণ্ড রাজস্ব বিভাগের একজন সাব ইন্সপেক্টরের নাম। শনিবার ভানু প্রতাপ প্রসাদ নামে ওই পুলিশকর্মীকে গ্রেফতার করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (Enforcement Directorate)। বেআইনি ভাবে জমির মালিকানা বদল চক্রে হেমন্তকে দিনের পর দিন সহায়তা করার অভিযোগ উঠেছে ভানুর বিরুদ্ধে।

ইডি সূত্রে খবর, ভানু প্রতাপের সহায়তায় ঝাড়খণ্ডের (Jharkhand) প্রায় ৮.৫ একর জমি অবৈধ ভাবে অধিগ্রহণ ও দখলে করে রেখেছিলেন হেমন্ত। ভানুর ফোন থেকে এই সংক্রান্ত মামলায় একাধিক তথ্য কেন্দ্রীয় তদন্তকারীদের হাতে এসেছে। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর বেশ কয়েকটি চ্যাট থেকে শুরু করে নগদ লেনদেনের নথি। আর এই সমস্ত তথ্যই প্রমাণ করে বেআইনি ভাবে জমি অধিগ্রহনে হেমন্তকে সুবিধা করে দিতেন রাজস্ব বিভাগের ওই সাব ইন্সপেক্টর।

বুধবার ৩১ জানুয়ারি হেমন্তের সরকারি বাসভবনে গিয়ে জমি কেলেঙ্কারি মামলায় তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী আধিকারিকরা। টানা ৭ ঘণ্টার জিজ্ঞাসাবাদের পর ইডি গ্রেফতার করে মুখমন্ত্রীকে। আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রেফতারির আগে রাজভবনে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দেন ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার (JMM) প্রধান। হেমন্তের গ্রেফতারের পর ঝাড়খণ্ডের নয়া মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শুক্রবার শপথ নেন চম্পই সোরেন (Champai Soren)। এদিনই আদালতে তোলা হয় হেমন্তকে। তাঁকে ৫ দিনের ইডি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। ঝাড়খণ্ড জম কেলেঙ্কারি মামলায় মুখ্যমন্ত্রী পর এবার গ্রেফতার ঝাড়খণ্ড রাজস্ব বিভাগের একজন সাব ইন্সপেক্ট।