খালিস্তানি স্লোগান দিয়ে নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহকে আক্রমণ , বাতিল ব়্যাপার হার্ড কৌরের টুইটার অ্যাকাউন্ট
ব়্যাপার হার্ড কৌর(Photo Credit: Twitter)

লন্ডন, ১৪ আগস্ট: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে( Minister Amit Shah) কটূক্তির (derogatory remarks) অভিযোগে লন্ডন নিবাসী ভারতীয় ব়্যাপার হার্ড কৌরের (Hard Kaur) অ্যাকাউন্ট বাতিল করল টুইটার। খালিস্তান প্রসঙ্গ তুলে একটি দু মিনিট ২০ সেকেন্ডের ভিডিও পোস্ট করেছিলেন হার্ড কৌর। সেই ভিডিওতে গান গেয়েছেন তিনি। গানের কলি অনেকটা এই রকম, “উই আর ওয়ারিয়ার্স, খালিস্তান জিন্দাবাদ”, গানের পাশাপাশি খালিস্তান আন্দোলনের সমর্থনে চ্যালেঞ্জ জানান ব়্যাপার। মোদি-শাহর উদ্দেশ্য কটূক্তিও করেন বলে অভিযোগ। তবে এই প্রথম নয় এর আগেও গেরুয়া শিবিরের দিকে হার্ড কৌরের আক্রমণ ধেয়ে এসেছে। আরও পড়ুন-এবার কি ওকালতি ছেড়ে বিজেপিতে সুষমা কন্যা বাঁশুরি স্বরাজ? রাজধানীতে গুঞ্জন

সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধেও সরব হয়েছিলেন তিনি। সেই সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের উদ্দেশে কটূক্তি করার অভিযোগ উঠেছিল হার্ড কউরের বিরুদ্ধে। মহাত্মা গান্ধীর হত্যা নিয়ে সরাসরি আক্রমণ করেছিলেন সঙ্ঘ প্রধান মোহন ভাগবতকে। নিজের বেশ কিছু পোস্টে ২৬/১১ হামলা ও অন্যান্য জঙ্গি নাশকতার জন্য দায়ী করেন সঙ্ঘ প্রধানকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় যোগী ও ভাগবতকে অপমান করা হয়েছে দাবি করে কউরের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ জানান বারাণসীর এক আইনজীবী। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে, র‍্যাপার হার্ড কউরের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহ, উস্কানিমূলক মন্তব্য, মানহানি ও তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা দায়ের করা হয়। কখনও সাংবাদিক গৌরী লংঙ্কেশের হত্যাকাণ্ড নিয়ে মুখ খুলেছেন, কখনও বা স্টেজে মদ্যপ অবস্থায় দর্শকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করছেন গেরুয়া শিবিরের বরাবরের বিরোধী ব়্যাপার হার্ড কৌর। এবার তিনি খোদ প্রধানমন্ত্রীকেই আক্রমণ করে বসলেন।

সম্প্রতি নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে একটি গানের ভিডিও প্রকাশ করেন তিনি। সেখানেই নিজেকে খালিস্তান আন্দোলনের সমর্থক হিসেবে দাবি করে গেরুয়া শিবিরকে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করেন। তাঁর নিশানা থেকে রেহাই পাননি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও। এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই সমালোচনার ঝড় ওঠে। বেগতিক বুঝে তড়িঘড়ি ব়্যাপারের অ্যাকাউন্ট বাতিল করে টুইটার।