উৎসবের আবেগে পুলিশকে জড়িয়ে ধরে চুমু, কী হল যুবকের?( দেখুন ভিডিও)
চলছে চুমু খাওয়ার পালা (Photo Credit: Facebook)

হায়দরাবাদ, ৩০ জুলাই: কথায় আছে না পুলিশে ছুঁলে ৩৬ ঘা, সত্যিই তাই। পুলিশ তো আর সাধে মারে না। মারার কাজ করতে হয়। তবে ভানু তো কাজ করেনি, পুলিশকে ভালবেসেছিল। ভরা বাজারে পুলিশকে একেবারে চুমু খেয়ে পেলল সে। হুঁশ থাকলে হয়ত চুমু খাওয়ার আগে দুবার ভাবত, কিন্তু সেসব ভাবনা চিন্তা তুলে রেখেই কাজটা করে ফেলল সে। সঙ্গে সঙ্গেই ফেরত পেল ভালবাসার মূল্য। ভানুর গালে সপাটে চড় বসিয়ে দিলেন কর্তব্যরত সাব ইন্সপেক্টর। উথলে ওঠা ভালবাসার এহেন খেসারত পেয়ে ভানু ভিড়ের মাঝে উধাও হলেও সিসিটিভি ফুটেজ তাকে চিনিয়ে দিতে দ্বিধা করেনি। আরও  পড়ুন-বাংলার রসগোল্লার মালিকানায় বসল ভাগ, ওড়িশা পেল জিআই ট্যাগ

ইতিমধ্যেই ভানুকে গ্রেপ্তার করে গারদে পুরেছে পুলিশ। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে হায়দরাবাদের নাল্লাকুন্তা থানা এলাকায়। এমনিতে তেলাঙ্গানায় এই সময় বোনালু উৎসব বা মহাকালীর পুজো হয়। সেই পুজোতেই হায়দরাবাদ সেকেন্দ্রাবদের বাসিন্দারা শোভাযাত্রা নিয়ে উৎসবে শামিল হন। এবারেও তার ব্যাতিক্রম হয়নি। তাই ভিড় সামলাতে পুলিশকেও উপস্থিত থাকতে হয়। রবিবার রাতে শোভাযাত্রা নিয়ন্ত্রণ করছিল নাল্লাকুন্তা থানার পুলিশ। ঘটনাস্থলে ছিলেন সাবইন্সপেক্টর মহেন্দ্র। আচমকাই শোভাযাত্রা থেকে বেরিয়ে পড়ে এক যুবক। তারপর মহেন্দ্রকে তাঁর কাজ থেকে বিরত করার চেষ্টা করে। যখন সে বুঝতে পারে মহেন্দ্রকে আটকানো সোজা নয়, তখনই প্রায় জোর করেই ওই সাবইন্সপেক্টরকে চুমু খেয়ে ফেলে যুবকটি। এই ঘটনায় বেদম রেগে যান মহেন্দ্র, সঙ্গে সঙ্গে সপাটে চড় বসিয় দেন যুবকের গালে। বেগতিক বুঝে মুহূর্তে ভিড়ে মিশে যায় সে। পরে শোভাযাত্রার সিসিটিভি ফুটেজ দেখে যুবককে চিহ্নিত করে পুলিশ। তার নাম ভানু, সে ঘটনাটি ঘটাবার সময় মদ্যপ অবস্থায় ছিল।

এদিকে পুলিশকে চুমু খেয়ে যে মহা ভুল করেছে তা ভালই বুঝেছিল ভানু। তাই পালানোর চেষ্টা করছিল। কিন্তু সিসিটিভি ফুটেজ তাকে ধরিয়ে দিল, ভানুকে নাগালে পেয়ে থানার লকআপে নিয়ে গিয়েছে পুলিশ। কর্তব্যরত পুলিশকর্মীকে তাঁর কাজের মধ্যে বিরক্ত করার অপরাধে ইতিমধ্যেই ভানুর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৬ ধারার আওতায় অভিযোগ জাম পড়েছে। আপাতত লকআপে ঠাঁই মিললেও খুব শিগগির তাকে আদালতে পেশ করা হবে।