COVID 19: দেশে গণটিকাকরণ, ভ্যাকসিনের ঘাটতি পূরণে ফাইজার, মর্ডানাকে নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিতে পারে কেন্দ্র
ছবি ট্য়ুইটার

দিল্লি, ২ জুন: চলতি বছর ডিসেম্বরের মধ্যে গোটা দেশের মানুষের টিকাকরণ (Vaccination) হবে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর সম্প্রতি এমনই জানিয়েছেন। গোটা দেশের মানুষের টিকাকরণ সম্পূর্ণ করতে কোভ্যাক্সিন, কোভিশিল্ড, স্পুটনিকের পাশাপাশি এবার ফাইজার এবং মর্ডানাকে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারের জন্য অনুমোদন দেওয়া হতে পারে ভারতে। সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ের তরফে জানা যাচ্ছে এমন খবর।

করোনার (Corona) বিরুদ্ধে লড়াই করতে ভারতের মানুষের টিকাকরণের ক্ষেত্রে যদি ফাইজার এবং মর্ডানা আবেদন করে, তাহলে ওই দুই সংস্থাকে রক্ষাকবচ দেওয়া হতে পারে ভারত সরকারের তরফে। করোনার (COVID 19) বিরুদ্ধে টিকাকরণে জরুরি ভিত্তিতে ব্য়বহারের জন্যই আইনি কার্যকলাপের বিরুদ্ধে ওই দুই সংস্থাকে রক্ষাকবচ দেওয়া হতে পারে বলে খবর।

আরও পড়ুন: Shreya Ghoshal: ছেলের প্রথম ছবি শেয়ার করে নাম প্রকাশ করলেন শ্রেয়া ঘোষাল, দেখুন

সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, ফাইজার (Pfizer) এবং মর্ডানা (Moderna), দুটি টিকাই ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের সঙ্গে লড়াই করতে সক্ষম। এমনকী, ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের উপর ফাইজারের কার্যকারিতার প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। ভারত সরকারের তরফে অনুমোদন দেওয়া হলে ফাইজার ৫ কোটি টিকার ডোজ শিগগিরই এ দেশে পাঠাতে পারবে বলেও জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত নীতি আয়োগের ডক্টর ভি কে পাল আগেই ফাইজারের অনুমোদন নিয়ে তাঁর সাংবাদিক বৈঠকে বিভিন্ন  বিষয়ের উল্লেখ করেন। এমনকী, ফাইজারের কার্যকারিতার বিষয়ে খতিয়ে দেখে, ওই টিকাকে এ দেশে অনুমোদন দেওয়ার বিষয়টিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন ভি কে পাল।এরপরই এই খবর প্রকাশ্যে আসে।

প্রসঙ্গত, ভারতের(India) পাশাপাশি মার্কিন মুলুক (US) সহ আরও বেশ কয়েকটি দেশে যাতে ফাইজারকে আইনি কার্যকলাপের বিরুদ্ধে রক্ষাকবচ দেওয়া হয়, সে বিষয়ে আবেদন জানানো হয়েছে।