Family Gets Rs 3,419 Crore Electricity Bill: ৩ হাজার ৪১৯ কোটি টাকা! মাসিক বিদ্যুতের বিল দেখেই হাসপাতালে বাড়ি মালিক
Representational Image (Photo credits: PTI)

গোয়ালিয়র, ২৮ জুলাই: বাড়ির বিদ্যুতের বিল (Electricity Bill) এসেছে ৩ হাজার ৪১৯ কোটি টাকা (3,419 Crore)। আর ওই বিল দেখেই ঘুম ছুটেছে মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) গোয়ালিয়রের (Gwalior) বাসিন্দা একটি পরিবারের। সম্প্রতি, গোয়ালিয়রের শিব বিহার কলোনির বাসিন্দা প্রিয়াঙ্কা গুপ্তার বাড়ির মাসিক বিদ্যুতের বিল আসে ৩ হাজার ৪১৯ কোটি ৫৩ লাখ ২৫ হাজার ২৯৩ কোটি টাকা। এত টাকার মাসিক বিদ্যুৎ বিল (Monthly Electricity Bill) পাওয়ার পরে একটি আকাশ থেকে পড়েন প্রিয়াঙ্কা। তাঁর বাবা অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছিল। অভিযোগ পাওয়ার পর রাজ্য বিদ্যুৎ সংস্থার তিন কর্তা শাস্তিমূলক ব্যবস্থার মুখোমুখি হয়েছেন।

বিদ্যুৎ সংস্থা এক্ষেত্রে মানুষের ভুলকেই দায়ী করেছে। তারা এটাও জানিয়েছে যে পরে ওই পরিবারকে সঠিক ১ হাজার ৩০০ টাকার বিল পাঠানো হয়েছে। রাজ্য সরকার সংশ্লিষ্ট কর্মীদের সাসপেন্ড করেছে। বিদ্যুৎ কোম্পানির সহকারী রাজস্ব অফিসারকেও সাসপেন্ড করা হয়েছে। এলাকার জুনিয়র ইঞ্জিনিয়রকে কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি করেছে বিদ্যুত সংস্থা।

প্রিয়াঙ্কার স্বামী সঞ্জীব পেশায় আইনজীবী। তিনি বলেন, "আমি বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানির ওয়েবসাইট থেকে ২০ জুলাই তারিখের বিলের স্ট্যাটাস ক্রস-চেক করেছি, কিন্তু সেখানেও একই বিল আপলোড করা হয়েছে। আমার শ্বশুর রাজেন্দ্র প্রসাদ গুপ্তা সোমবারই হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন।"

বিদ্যুৎ কোম্পানির জেনারেল ম্যানেজার নীতিন মাঙ্গলিক বিশাল টাকার বিলের জন্য সফটওয়্যার ত্রুটিকে দায়ী করেছেন। তিনি বলেন, "একজন কর্মচারী সফটওয়্যারটিতে ব্যবহৃত ইউনিটের জায়গায় গ্রাহক নম্বর এন্ট্রি করান, যার ফলে বিলটি এত বেশি হয়। গ্রাহককে সংশোধন করা বিল পাঠানো হয়েছে।" স্থানীয় বিধায়ক এবং রাজ্যের শক্তি মন্ত্রী প্রদ্যুম্ন সিং তোমর বলেছেন, "যখন ত্রুটি সম্পর্কে আমরা জানতে পারি তখন এটি সংশোধন করা হয়েছিল এবং কর্মীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।"