Lalitpur Rape Case: থানার মধ্যেই ১৩ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত পুলিশ আধিকারিক গ্রেফতার

লখনউ, ৪ মে: উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) ললিতপুরে (Lalitpur) থানার মধ্যেই ১৩ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত পুলিশ আধিকারিককে গ্রেফতার করা হল। অভিযুক্ত স্টেশন হাউস অফিসার তিলকধারী সরোজকে (Tilakdhari Saroj) উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজ থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ জানাতে যাওয়া এক কিশোরীকে থানার মধ্যেই আবারও ধর্ষণের (Rape) অভিযোগ রয়েছে। চমকে ওঠার মতো ঘটনাটি ঘটেছে । অভিযোগ ওঠার পরই সরোজকে সাসপেন্ড করা হয়। এছাডা়ও তার বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রুজু করা হয়েছে।

মঙ্গলবার মেয়েটির বাবার দায়ের করা এফআইআরে বলা হয়েছে, চারজন লোক কিশোরীকে ২২ এপ্রিল ভোপালে নিয়ে যায়, যেখানে তারা তাকে চারদিন ধরে ধর্ষণ করে। চারদিন পর অভিযুক্তরা কিশোরীকে গ্রামে ফিরিয়ে নিয়ে আসে এবং থানার কাছে ছেড়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। থানার ইনচার্জ তারপর মেয়েটিকে তার পিসির কাছে হস্তান্তর করেন। পরের দিন মেয়েটিকে বয়ান রেকর্ড করার জন্য থানায় ডাকা হয়েছিল। অভিযোগ, স্টেশন হাউস অফিসার তিলকধারী সরোজ মেয়েটিকে তার পিসির উপস্থিতিতেই থানায় একটি ঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। এফআইআর-এ মেয়েটির পিসির নামও এফআইআরে রয়েছে।

ললিতপুর পুলিশ জানিয়েছে যে তারা তিলকধারী সরোজের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছে এবং পকসো আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। ললিতপুরের পুলিশ সুপার নিখিল পাঠক এক বিবৃতিতে বলেছেন, "এসএইচও-কে সাময়িক সাসপেন্ড করা হয়েছে। একটি এনজিও মেয়েটিকে আমার অফিসে নিয়ে এসেছিল। সে তাদের বিস্তারিত জানিয়েছিল।"

এদিকে, এই ঘটনায় উত্তরপ্রদেশের মুখ্যসচিব এবং উত্তরপ্রদেশের ডিজিপি-কে নোটিশ পাঠিয়েছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। ৪ সপ্তাহের মধ্যে তারা রিপোর্ট চেয়েছে।