Jharkhand Shocker: ঋণ শোধ করতে পারেনি বাবা, তাই অন্তঃসত্ত্বা মেয়েকে ট্রাক্টরে পিষে মারল ঋণ আদায়কর্মী

হাজারিবাগ, ১৭ সেপ্টেম্বর: ট্রাক্টর (Tractor) কেনার জন্য ঋণের কিস্তি দিতে পারেনি বিশেষ ভাবে সক্ষম কৃষক। ঋণ আদায় করতে এসে ওই কৃষকের তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা মেয়েকে (Pregnant Woman) ট্রাক্টর দিয়ে পিষে মারল ঋণ প্রদাণকারী সংস্থার এক কর্মী (Loan Recovery Agent)। বৃহস্পতিবার মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের (Jharkhand) হাজারিবাগ (Hazaribagh) জেলায় ইচক থানা এলাকায়। অভিযুক্ত ঋণ আদায়কারী এজেন্ট এবং প্রাইভেট ফাইন্যান্স কোম্পানির ম্যানেজার-সহ চারজনের বিরুদ্ধে হত্যার মামলা রুজু করেছে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে।

পুলিশ জানিয়েছে, বেসরকারি ঋণ প্রদানকারী সংস্থা মাহিন্দ্রা ফাইন্যান্স-র থেকে ঋণ নিয়ে কয়েক মাস আগে একটি ট্রাক্টর কিনেছিলেন ওই বিশেষ ভাবে সক্ষম কৃষক। তবে চাষে বিশেষ লাভের মুখ না দেখায় ট্রাক্টর কেনার ঋণের মাসিক কিস্তি দিতে পারছিলেন না তিনি। তাই ট্রাক্টর তুলে নিয়ে যাওয়ার জন্য তাঁর বাড়িতে আসেন মাহিন্দ্রা ফাইন্যান্স-র এক ঋণ আদায়কর্মী। কৃষক ও আদায়কর্মীর মধ্যে তর্কাতর্কি শুরু হয়ে যায়। এই সময় ওই কৃষকের তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা মেয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসেন। তাঁর সঙ্গেও ওই আদায়কর্মীর চেঁচামচি শুরু হয়। এর পরই ওই অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে শরীরের উপর দিয়ে ট্রাক্টর চালিয়ে দেন অভিযু্ক্ত আদায়কর্মী। মহিলাকে তড়িঘড়ি স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। আরও পড়ুন: Narendra Modi Birthday Wish: জন্মদিনে শুভেচ্ছার বন্যায় ভাসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট রাষ্ট্রপতির

জেলা পুলিশ সুপার মনোজ রতন চোথে জানিয়েছেন যে ওই এজেন্ট এবং প্রাইভেট ফাইন্যান্স কোম্পানির ম্যানেজার-সহ চারজনের বিরুদ্ধে হত্যার মামলা দায়ের করা হয়েছে।" নির্যাতিতার এক আত্মীয় জানান, মাহিন্দ্রা ফাইন্যান্স কোম্পানির আধিকারিকরা কৃষককে না জানিয়েই বাড়িতে চলে আসেন। স্থানীয় পুলিশও জানিয়েছে যে ফাইন্যান্স কোম্পানির আধিকারিকরা ট্রাক্টর উদ্ধারের জন্য কৃষকের বাড়িতে যাওয়ার আগে স্থানীয় থানাকে জানায়নি।

মাহিন্দ্রা গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার অনীশ শাহ শুক্রবার জানিয়েছেন যে তাঁরা সমস্ত দিক খতিয়ে দেখবেন। তিনি এক বিবৃতিতে বলেন, "হাজারিবাগের ঘটনায় আমরা গভীরভাবে ব্যথিত এবং বিচলিত।" তিনি মামলার তদন্তে সহযোগিতার আশ্বাসও দেন।