হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে স্কুলের প্রেয়ার লাইনে মৃত্যু পড়ুয়ার, জামশেদপুরে চাঞ্চল্য
প্রতীকী ছবি (Photo Credit: PTI)

রাঁচি, ১৬ অক্টোবর: স্কুলের প্রার্থনা সংগীত চলাকালীন হৃদরোগে আক্রান্ত (heart attack) হয়ে মৃত্যু হল এক খুদে পড়ুয়ার। মৃতের নাম বৈষ্ণবী ঝা (Vaishnavi Jha)। তার বয়স ছয় বছর। ঝাড়খণ্ডের জামশেদপুরের (Jamshedpur) টেলকো এলাকার (Telco area) শিক্ষা নিকেতন স্কুলে (Shiksha Niketan school) বুধবার সকালে মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে। শিক্ষকরা জানিয়েছেন, সকালে যখন বৈষ্ণবী স্কুলে এসেছিল তখন সে সুস্থই ছিল। তাকে সহপাঠীদের সঙ্গে প্রেয়ার লাইনে দাঁড়াতেও দেখা যায়। সেখানে আচমকাই সে পড়ে গেলে তড়িঘড়ি তাকে স্থানীয় টাটা মোটরস হাসপাতালে (Tata Motors Hospital) নিয়ে যাওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসকরা পরীক্ষা করেই জানান, ওই নাবালিকার মৃত্যু হয়েছে। গোটা ঘটনায় স্কুলে নেমেছে শোকের ছায়া। শিশুটির পরিবারের সদস্যরা কথা বলার অবস্থাতেই নেই।

এই দু্র্ভাগ্যজনক ঘটনা প্রসঙ্গে স্কুলের অধ্যক্ষা সুনীতা দে (School principal Sunita Dey) বলেছেন, আমাদের ওই ছাত্রী প্রেয়ার লাইনে হঠাৎ পড়ে যেতেই তাকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, প্রয়োজনীয় চিকিৎসার জন্য। তবে দুর্ভাগ্য বশত আমার তাকে বাঁচাতে পারিনি। এরপর মৃত ছাত্রীর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে তার আত্মার শান্তির জন্য স্কুলে দু মিনিট নীরবতা পালন হয়। তারপর আজকের দিনের জন্য স্কুল ছুটিও হয়ে যায়। আরও পড়ুন-INX Media Case: পি চিদম্বরমকে জেরা করতে তিহাড় জেলে ইডির কর্তারা, তাঁকে গ্রেপ্তারের সম্ভাবনা

ঠিক কী ধরনের অসুস্থতার কারণে ওই ছাত্রীর মৃত্যু হল তা এখন তদন্ত সাপেক্ষ। দেহের ময়নাতদন্ত হলেই প্রকৃত কারণ জানা যাবে। বৈষ্ণবী আগে থেকেই অসুস্থ চিল কি না নাকি স্কুলে আসার পথে অসুস্থ হয়েছে তা বোজা যাচ্ছে না। বাড়ির লোকজন গোটা ঘটনায় এতটাই আঘাত পেয়েছেন যে জিজ্ঞাসাবাদের পর্যায়ে তাঁরা নেই। শিশুটির কোনও জটিল রোগ ছিল কি না তা-ও জানার চেষ্টা হচ্ছে।