পুলওয়ামার ধাঁচে হামলা করতে কাশ্মীরে ঢুকেছে জঙ্গির দল, সেনাকে সতর্ক করল গোয়েন্দা দপ্তর
কাশ্মীরে নিকেশ ২ জঙ্গি (Photo Credits: IANS)

জম্মু ও কাশ্মীর: ফের বড়সড় হামলা ছক, উপত্যকায় পুলওয়ামা (Pulwama) ধাঁচের হামলা চালাতে পারে জঙ্গিরা। সম্প্রতি এমনই রিপোর্ট দিয়ে সেনাবাহিনীকে সতর্ক করল গোয়েন্দা দপ্তর। গোয়েন্দাদের দাবি হিজবুল জঙ্গি বুরহান ওয়ানির মৃত্যু বার্ষিকীতেই হামলার মুখে পড়তে চলেছে উপত্যকা। সম্প্রতি এই রিপোর্ট দিয়েই নিরাপত্তাবাহিনীকে সতর্ক করেছে গোয়েন্দা দপ্তর। গোপন সূত্রে এই খবরই পেয়েছে বিভিন্ন সিক্রেট এজেন্সি। মূলত জঙ্গি নেতার হত্যার বদলা নিতেই এই হামলার ছক কষা হয়েছে। আরও পড়ুন-মিথ্যে মামলায় জর্জরিত আপনি না বাঁচালে আত্মহননের অনুমতি দিন, রক্ত দিয়ে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দকে চিঠি ২ বোনের

সূত্রের খবর অনুযায়ী, সম্ভবত কোনও জাতীয় সড়কের উপরেই নিরাপত্তাকর্মীদের উপর হামলা চালাতে পারে জঙ্গিরা (Terrorists)। একেবারে গত ১ ফেব্রুয়ারিতে পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে যেমনটা ঘটেছিল।  এই নাশকতায় একসঙ্গে ৭ থেকে ৮ জনের একটি জঙ্গি দল থাকতে পারে বলে অনুমান করা হয়েছে। তারা স্নাইপার ব্যবহার করেই এই হামলা চালাবে বলে গোপন সূত্রে খবর পেয়েছে গোয়েন্দা সংস্থাগুলি। ইতিমধ্যেই হামলাকারীরা ঢুকে পড়েছে কাশ্মীরে( Jammu and Kashmir) । এবং নিজেদের পরিচয় পাল্টে মিশে গিয়েছে উপত্যকার আম জনতার সঙ্গে। তবে সতর্কবার্তা আসার পর থেকেই তৎপর জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ এবং সেনাবাহিনী। কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে পুলওয়ামা, জোরকদমে চলছে তল্লাশি।

উল্লেখ্য, ২০১৬-র আট জুলাই একটি এনকাউন্টারে নিরাপত্তারক্ষীদের গুলিতে ঝাঁঝরা হয়ে গিয়েছিল কুখ্যাত হিজবুলজঙ্গি বুরহান ওয়ানি। এরপর কেটে গিয়েছে তিন বছর। চলতি বছর বুরহান ওয়ানির তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকীর দিনে বদলা নিতে হামলা চালাতে পারে জঙ্গি সংগঠন। গোপন সূত্রে এমনটাই খবর এসেছে গোয়েন্দা দপ্তরের হাতে। তবে কোন জঙ্গি সংগঠন এই হামলায় যুক্ত থাকতে পারে সে ব্যাপারে অবশ্য নিশ্চিত ভাবে এখনও কিছু জানা যায়নি। এই নাশকতায় ব্যবহার করা হতে পারে আইইডি বিস্ফোরক, স্নাইপারও। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি এই পুলওয়ামাতেই সিআরপিএফ-এর কনভয়ে ভয়ানক আত্মঘাতী হামলা চালিয়েছিল পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদ। প্রায় ১০০ কেজি বিস্ফোরক সমেত একটি ধাক্কা মারে সিআরপএফ-এর কনভয়ে। শহিদ হন ৪৪ জন জওয়ান।