Priyanka Gandhi Protest at India Gate: জামিয়াকাণ্ডে ইন্ডিয়া গেটে ধরনায় বসলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি বঢরা
ধরনায় বসলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি বঢরা (Photo Credits: IANS)

নতুন দিল্লি, ১৬ ডিসেম্বর: জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (Jamia Millia Islamia University) ঢুকে পড়ুয়া পেটানোর ঘটনায় সরব হয়েছে গোটা দেশ (India)। প্রতিবাদের আঁচে উত্তপ্ত দেশের বিভিন্ন মহল। এবার প্রতিবাদ জানিয়ে ধরনায় বসলেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধি বঢরা (Priyanka Gandhi)। সোমবার ২ ঘণ্টার জন্য দিল্লির ইন্ডিয়া গেটে প্রতীকী ধরনায় বসেন পূর্ব উত্তর প্রদেশের কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক।

এদিন সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে প্রিয়াঙ্কা জানান, 'দেশের পরিস্থিতি খুবই খারাপ। পড়ুয়াদের মারতে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকছে পুলিশ। সংবিধানকে লঙ্ঘন করছে সরকারই। তবে আমরা সংবিধানের জন্য লড়াই করব।' জামিয়ার ঘটনা 'ভারতের আত্মার উপর হামলা' বলেও মন্তব্য করেন সনিয়া-তনয়া। প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে ধরনায় বসেন কংগ্রেসের তিনশোরও বেশি নেতাকর্মীরা। এদিকে, বাম, সমাজবাদী পার্টি সহ অন্য বিরোধীদের নিয়ে এদিন সাংবাদিক বৈঠক করেন কংগ্রেসের বর্ষীয়ান নেতারা। জামিয়ার পড়ুয়াদের উপর পুলিশি লাঠিচার্জের ঘটনায় যথাযথ বিচারবিভাগীয় তদন্তের দাবি তুলেছেন তাঁরা। এই নিয়ে আগামীকাল রাষ্ট্রপতি কোবিন্দের (Ramnath Kovind) কাছেও যাবেন কপিল সিব্বল, গুলাম নবি আজাদরা বলে জানা গিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে হুঁশিয়ারি দিয়ে প্রিয়াঙ্কা বলেন, এভাবে যুব সমাজকে চেপে রাখা যাবে না। তাঁর কথায়, 'মানুষের কণ্ঠে ভীত এই সরকার। তারা নিজেদের স্বৈরতন্ত্রের দ্বারা যুব সমাজকে চুপ করিয়ে রাখতে চাইছে।' আরও পড়ুন: CAA: নাগরিকত্ব সংশোধন আইনে দেশব্যাপী উত্তাপ রুখতে সমস্ত রাজ্যসহ সমস্ত কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে উপদেষ্টা কমিটি বহাল করল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক

এছাড়াও নিজের টুইটার হ্যান্ডেল (Twitter) থেকে ট্যুইট করে প্রিয়াঙ্কা বলেন, 'পুলিশ বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকে ছাত্রদের পেটাচ্ছে। যে সময়ে সরকারের এগিয়ে এসে মানুষের কথা শোনা উচিত, তখন বিজেপির সরকার উত্তর-পূর্ব, উত্তরপ্রদেশ ও দিল্লিতে ছাত্র এবং সাংবাদিকদের উপর নিপীড়ন চালাচ্ছে। এটা একটা ভীতু সরকার।'