Jammu and Kashmir: ২০১৮ থেকে জুলাইয়ের ৩১ তারিখ পর্যন্ত কাশ্মীরে শহিদ হয়েছেন ৩১৯ জন নিরাপত্তারক্ষী, রাজ্যসভায় জানাল কেন্দ্র
File Photo (Photo Credit: IANS)

নয়াদিল্লি: ২০১৮ সাল থেকে ২০২৩ সালের ৩১ জুলাই পর্যন্ত কেন্দ্রশাসিত (Union Territory) জম্মু ও কাশ্মীরে (Jammu and Kashmir) ৩১৯ জন নিরাপত্তারক্ষী (Security personnel) শহিদ (kill) হয়েছেন। বুধবার রাজ্যসভায় (Rajya Sabha) লিখিত জবাব দিয়ে একথা জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই (MoS Home Nityanand Rai)। তাঁর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এই সময় কালের মধ্যে জম্মু ও কাশ্মীরে ৭৯১টি জঙ্গি হামলার ঘটনা (terrorist incidents) ঘটেছে। সেগুলি আটকাতে গিয়ে এনকাউন্টার (encounters) ও কাউন্টার অপারেশনের (counter operations) ফলে ৩৫ জন সাধারণ নাগরিকেরও মৃত্যু হয়েছে।

জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকে (NDRF) আরও শক্তিশালী করার জন্য ভারত সরকার (Government of India) এই বাহিনীতে আরও চারটি অতিরিক্ত ব্যাটেলিয়ান খোলার বিষয়ে সম্মতি দিয়েছে বলেও একটি প্রশ্নের জবাবে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই। এর ফলে দেশে এনডিআরএফের ব্যাটেলিয়ানের সংখ্যা ১২ থেকে বেড়ে ১৬ হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

গ্রেটার নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে একটি প্রশ্নের লিখিত জবাবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজ্যসভায় জানান, গ্রেটার নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে (Great Nicobar Island) সাধারণ মানুষের ঘোরাফেরার বিষয়ে বিভিন্ন ধরনের আইন রয়েছে। তার মধ্যে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ (আদিবাসীদের সুরক্ষা) রেগুলেশন, ১৯৫৬ আইনও (Andaman and Nicobar Islands (Protection of Aboriginal Tribes) Regulation, 1956) রয়েছে। এখন গ্রেটার নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের ক্যাম্পবেল বে (Campbell Bay) এলাকায় পর্যটকদের (Tourists) যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। ২০২৩ জানুয়ারি থেকে এখনও পর্যন্ত দ্বীপপুঞ্জের বাসিন্দাদের মধ্যে ৭ হাজার ৩১৬টি টিকিট ও বাইরের পর্যটকদের মধ্যে ৭১০টি টিকিট ইস্যু করা হয়েছে। আরও পড়ুন: Rajasthan Shocker: পাশবিক! তান্ত্রিকের হাতে ধর্ষিতা নাবালিকাকে হাসপাতালে গণধর্ষণে অভিযুক্ত স্বাস্থ্য কর্মীরা