HC on Hindu-Muslim Couple: হিন্দু মহিলাকে মুসলিম স্বামীর সঙ্গে থাকার অনুমতি দিল কর্ণাটক হাইকোর্ট (দেখুন রিপোর্ট)
Karnataka Highcourt Photo Credit: File Image

সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিচয়ের পর গত এপ্রিল মাসে এক মুসলিম যুবককে বিয়ে করেছিলেন এক যুবতী। কিন্তু স্বামী মুসলিম হওয়ায় তার সঙ্গে একসঙ্গে থাকতে অসুবিধা সৃষ্টি করছিলেন তাঁর মা ও পরিবার।  যুবতীর মায়ের করা একটি মামলার প্রেক্ষিতে এবার বড় পর্যবেক্ষণ করল কর্ণাটক হাইকোর্ট।  বিচারপতি এস সুনীল দত্ত যাদব এবং ভেঙ্কটেশ নায়েক টি-এর ডিভিশন বেঞ্চ তাঁদের পর্যবেক্ষণে বলেছে যে যেহেতু প্রাপ্তবয়স্ক মহিলাটি তার মায়ের সাথে থাকতে অস্বীকার করেছে এবং সে বিবাহিত হওয়া স্বত্তেই পড়াশোনা করছিল, তাই সে বিনা বাধাতেই তাঁর স্বামীর সঙ্গে থাকতে পারে।

আদালত মহিলার মায়ের দায়ের করা একটি হেবিয়াস কর্পাস আবেদনের শুনানি করছিলেন।মহিলা আদালতে হাজির হন এবং তার মায়ের সাথে থাকতে অনাগ্রহ প্রকাশ করেন।তার গৃহীত অবস্থানের নোট নেওয়ার পরে, আদালত কর্ণাটক হাইকোর্টের জুভেনাইল জাস্টিস কমিটির ডেপুটি সেক্রেটারির উপস্থিতিতে তার সঙ্গে ক্যামেরায় যোগাযোগ করেছিল। এই মামলাটি চলাকালীন তাঁরা সুপ্রিম কোর্ট দেবু জি নায়ার বনাম কেরালা রাজ্য এবং ওরস দ্বারা জারি করা নির্দেশিকাগুলির সঙ্গে সহমত পোষণ করে।

পরবর্তীকালে, আদালত উল্লেখ করেছে যে মহিলাটি গত ১  এপ্রিল বিয়ে করার পর কেরালায় তার স্বামীর সঙ্গে থাকছিলেন। এমনকি কলেজে ব্যাচেলর অফ কমার্স (বিকম) ডিগ্রি নিয়ে পড়াশোনাও করছিলেন। আদালত আরও উল্লেখ করেছে যে মহিলাটি স্বেচ্ছায় তার বাবা-মায়ের বাড়ি ছেড়েছিল এবং কোনও জবরদস্তি বা অযাচিত প্রভাবের মুখোমুখি হয়নি। এবং তিনি যেহেতু নিজের সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য স্বাধীন ছিলেন তাই, আদালত স্থির করেন যে বিষয়টিকে আর রায়ের জন্য ফেলে রাখা হয়নি।