Kerala: ৩০ বছর ধরে ছাত্রীদের শ্লীলতাহানি, গ্রেফতার সিপিএম কাউন্সিলর
প্রতীকী ছবি(File Photo)

কোচি, ১৪ মে: একটা ফেসবুক পোস্টেই সামনে চলে এল তাঁর অপকীর্তি- নোংরামো। দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষকতা করেন, বাম আন্দোলনেও যোগ দিতেন। কেরলের এক পুরসভা থেকে জিতে কাউন্সিলরও ছিলেন। কেরলের মল্লপুরম জেলার সেই শিক্ষক-সিপিএম নেতা তথা জনপ্রতিনিধি শশী কুমারকে গ্রেফতার করা হল। ৩০ বছর ধরে মহিলা- ছাত্রীদের ওপর শ্লীলতাহানির অভিযোগে পকসো আইনে তাঁকে ধরা হয়। ৬০ জনেরও বেশি ছাত্রীদের ওপর শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে এই বাম শিক্ষকের ওপর।

ক দিন আগেই শশী সেন্ট জেমস গার্লস হায়ার সেকেন্ডারি স্কুল থেকে অবসর নেওয়ার কথা জানিয়ে পোস্ট করেছিলেন। সেই পোস্টের কমেন্টে তাঁর এক ছাত্রী বলেছিলেন, কীভাবে তিনি বারবার শ্লীলতহানি করতেন। আরও পড়ুন: ১৯ বছরের মহিলাকে ছুরি দেখিয়ে গণধর্ষণ, সিসিটিভি দেখে তদন্তে এগোচ্ছে পুলিশ

দেখুন টুইট

এরপর একের পর এক মহিলা সসি-র খারাপ স্বভাব, শ্লীলতাহানি নিয়ে মুখ খুলে, নিজেদের খারাপ অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে কমেন্ট করতে থাকে  সেই পোস্টে। ফেসবুক পোস্টটি ভাইরাল হলে পুলিশ এই সিপিএম কাউন্সিলরকে গ্রেফতার করে। পকসো ( দ্য প্রোটেকশন অফ চিলড্রেন ফ্রম সেক্সুয়াল অফেন্সেস অ্যাক্ট ২০১২) আইনে তাঁকে ৩০ বছর ধরে ছাত্রীদের শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়। দল তাঁকে সাসপেন্ড করেছে বলে খবর।