বিদ্বেষের রাজনীতি, গণপিটুনি, হিংসা ভারতের শাসন পরিকাঠামোকে নষ্ট করছে, গর্জে উঠলেন মনমোহন সিং
প্রাক্তন ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী (Photo Credit:PTI)

দিল্লি, ২০ আগস্ট: দেশের সংহতি প্রতিনিয়ত বিনষ্ট হচ্ছে ধীরে ধীরে বেড়ে চলেছে অসহিষ্ণুতা। এসবের জন্য কেন্দ্রের মোদি সরকারকেই দায়ী করে তোপ দাগলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী তথা প্রবীণ কংগ্রেস নেতা ডক্টর মনমোহন সিং (Dr. Manmohan Singh)। দিল্লিতে এক আলোচনা সভায় এদিন মোদি সরকারকে এক হাত নেন মনমোহন সিং। বলেন,  দেশজুড়ে একের পর এক হিংসার ঘটনা ঘটছে। ধর্মের নামে রাজনীতি হচ্ছের। আর রাজ নীতির নামে চলছে গণপিটুনি। এসবের কারণেই ভারতের শাসন ব্যবস্থা ক্ষতির মুখে এসে দাঁড়িয়েছে। আর যার জন্য ভীষণভাবে দায়ী কেন্দ্রের মোদি সরকার।

রাজীব গান্ধীর ৭৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক সেমিনারে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধ তোপ দাগেন ডক্টর মনমোহন সিং। তিনি বলেন, বেশ কয়েকবছর ধরে গোটা দেশ নানারকম সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে। এগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলে ক্রমাগত বেড়ে চলা অসহিষ্ণুতা, বিদ্বেষ, সাম্প্রদায়িকতার রাজনীতি। এসবের কারণেই মারধর হিংসার ঘটনা ঘটছে অহরহ। গণপিটুনির ঘটনায় ধীরে ধীরে দেশের কাঠামোগত শাসন ব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। দেশের অর্থনীতিকে ক্রমাগত নিয়ন্ত্রণ করে চলেছে সরকার। তাইতো তার স্বাভাবিক বিকাশ বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে। অর্থনীতিকে গলা টিপে মারছে বিজেপি সরকার। সবকিছুর বেসরকারি করণ করতে গিয়ে লাভের গুড় পিপড়ে খাচ্ছে, দেশের অর্থনীতি মাথা খুঁড়ে মরছে। এজন্যই গত জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত জিডিপি বৃদ্ধির হার মাত্র ৬.৫ শতাংশ। আরও পড়ুন-

তবে এই প্রথম নয় এর আগেও কেন্দ্রের মোদি সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন কংগ্রেস জমানার অর্থমন্ত্রী তথা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ডক্টর মনমোহন সিং। সেবারও দেশের অর্থনীতির এহেন ধীরগতিকেই আক্রমণের লক্ষ্যবস্তু করেছিলেন তিনি। তাঁর মতে মোদি সরকারের অযাচিত নিয়ন্ত্রণেই দেশের অর্থনীতি স্বাধীনতার আন্নদ নিতে পারছে না। পদে পদে বাধা পেয়ে শম্বুক গতিতে এগোচ্ছে।