Citizenship Amendment Act Protests In Delhi: সিএএ বিরোধিতায় উত্তাল হতে পারে দিল্লি, অশান্তি এড়াতে লালকেল্লা লাগোয়া এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি পুলিশের, বন্ধ ১৪টি মেট্রো স্টেশন
লালকেল্লার চারপাশে কড়া পুলিশি প্রহরা(Photo Credits: ANI)

নতুন দিল্লি, ১৯ ডিসেম্বর: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (Citizenship Amendment Act) বিরোধিতায় এবার উত্তাল হয়ে উঠতে পারে লালকেল্লা (Red Fort)। আগেভাগে খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ১৪৪ ধারা (Section 144) জারি করল দিল্লি পুলিশ। লালকেল্লা ও সংলগ্ন এলাকায় কোনওভাবেই যাতেই বিক্ষোভ সমাবেশ না হতে পারে সেজন্য ট্রাফিকের ক্ষেত্রেও বেশকিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। কাজের দিনে এভাবে ট্রাফিকের গতি ভিন্ন পথে ঘুরিয়ে দেওয়ায় যানজটে নাকাল রাজধানীর নিত্যযাত্রীরা। বেলা বাড়লে পরিস্থিতি যে আরও খারাপ হবে তা বলাই বাহুল্য। লালকেল্লা লাগোয়া এলাকায় ভিড় কমাতে কাছাকাছি ১৪টি মেট্রো স্টেশনের দরজা বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ। এদিকে আজই ‘আমরা ভারতবাসী’ ব্যানারকে সামনে রেখে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় পথে নামবে লাখো লোক।

জানা গিয়েছে, এই মিছিল শুরু হবে ঐতিহাসিক লালকেল্লার প্রাঙ্গন থেকে চলবে শহিদ ভগৎ সিং পার্ক পর্যন্ত। যদিও এই মিছিল করার অনুমতি দেয়নি পুলিশ। অন্যদিকে কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃত্বে আরও একটি মিছিলের পরিকল্পনা রয়েছে রাজধানীতে। সেই মিছিলটি মান্ডি হাউস থেকে শুরু হয়ে চলবে যন্তরমন্তর পর্যন্ত। বামপন্থী মিছিলটি মূলত এনআরসি ও সংসোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতাতেই হচ্ছে। এদিকে প্রতিবাদীদের সঙ্গে আরও মানুষ যাতে মিলতে না পারে সেজন্য ১৪টি মেট্রো স্টেশনে ইতিমধ্যেই তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে দিল্লির মেট্রো কর্পোরেশন। প্যাটেল চক, লোক কল্যাণ সড়ক, উদ্যান ভবন, আইটিও, প্রগতি ময়দান, খান মার্কেট, লাল কেল্লা, জামে মসজিদ, চাঁদনী চক, বিশ্ববিদ্যালয়, জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া, জসোলা বিহার, শাহীনবাগ ও মুনিরকা স্টেশনের প্রবেশ ও বেরিয়ে যাওয়ার দরজা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। গত মঙ্গলবারেও সীলামপুরের পুলিশ বিক্ষোভকারীর খণ্ডযুদ্ধ বন্ধ করতে রাজধানীর সাতটি মেট্রো স্টেশনের প্রবেশ ও বেরনোর পথে তালা ঝোলানো হয়েছিল। আরও পড়ুন-Uttar Pradesh And Karnataka Imposes Section 144: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় ফুটছে উত্তরপ্রদেশে কর্ণাটক, অশান্তি এড়াতে তড়িঘড়ি দুই রাজ্যেই জারি ১৪৪ ধারা

গত রবিবার জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকে ছাত্রদের উপরে অকথ্য অত্যাচার চালিয়েছে পুলিশ। এরপরেই সংশ্লিষ্ট এলাকা উত্তপ্ত হয়ে উঠলে সোমবার চার ঘণ্টার জন্য জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া মেট্রো স্টেশনের প্রবেশ ও বেরনোর গেট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। ওই দিন বেলার দিকে ইন্ডিয়া গেটে বিক্ষোভ প্রতিবাদের পরিপরিপ্রেক্ষিতে সেন্ট্রাল সেক্রেটারিয়েট, উদ্যান ভবন, লোক কল্যাণ মার্গ এবং জনপথ স্টেশনের প্রবেশ ও বেরনোর গেট দু’ঘণ্টার জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল।