Coronavirus Cases in India: ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত ৮৮,৬০০, মৃত্যু ছাড়াল ৯৪ হাজার
ভারতে করোনা (Photo Credits: PTI)

নতুন দিল্লি, ২৭ সেপ্টেম্বর: ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হলেন ৮৮ হাজার ৬০০ জন। একই সময়ে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ১২৪ জনের। দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫৯ লাখ ৯২ হাজার ৫৩৩ জন। তার মধ্যে ৯ লাখ ৫৬ হাজার ৪০২ জনের বর্তমানে চিকিৎসা চলছে। ৪৯ লাখ ৪১ হাজার ৬২৮ জন সুস্থ হয়েছেন। দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৯৪ হাজার ৫০৩ জনের। আজ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের (Ministry of Health & Family Welfare) তরফে এই পরিসংখ্যান দেওয়া হয়েছে।

আইসিএমআর (ICMR) জানিয়েছে, গতকাল ২৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশে ৭ কোটি ১২ লাখ ৫৭ হাজার ৮৩৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তার মধ্যে গতকাল করা হয়েছে ৯ লাখ ৮৭ হাজার ৮৬১টি নমুনার পরীক্ষা। আরও পড়ুন: COVID-19 Vaccine Update: দেশবাসীকে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার জন্য ৮০,০০০ কোটি টাকা রয়েছে? কেন্দ্র সরকারকে প্রশ্ন সিরাম ইনস্টিটিউটের কর্ণধারের

দেশজুড়ে করোনা রুখতে ভ্যাকসিন আনতে ইঁদুর দৌড় দৌড়াচ্ছে ভারতীয় সংস্থাগুলি। তবে করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কার হওয়ার পর দেশের মানুষকে সুরক্ষিত করতে পারবে কেন্দ্র সরকার। করোনার ভ্যাকসিন এলেও কি সকল দেশবাসী তা পাবে? সকলকে প্রতিষেধক দেওয়ার জন্য ভ্যাকসিন কেনার টাকা কি কেন্দ্র সরকারের আছে? শনিবার সেই প্রশ্নই তুললেন সিরাম ইন্সটিটিউটের (Serum Institute) ভারতীয় শাখার সিইও আদর পুনাওয়ালা (Adar Punawala)। সিরাম ইনস্টিটিউটই ভারতে অক্সফোর্ডের টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করছে।

তিনি টুইট করে লেখেন,“কেন্দ্র সরকারের কাছে ৮০ হাজার কোটি টাকা আছে তো? কারণ, সকল দেশবাসীর জন্য করোনা ভ্যাকসিন কিনতে ও পৌঁছে দিতে আগামী এক বছরের মধ্যে এই অঙ্কের টাকাই প্রয়োজন।” আরেকটি টুইটে তিনি লেখেন, “আমি এই প্রশ্নটা করছি, কারণ ভারতের ও বিদেশের ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারকদের নির্দিষ্ট গাইডলাইনস দিতে হবে। ভারতের জন্য কত টিকা প্রয়াজন, কীভাবে তা সরবরাহ হবে, তা নিয়ে সুনির্দিষ্ট ভাবনাচিন্তা দরকার”। তিনি আরও জানান, দেশজুড়ে ভ্যাক্সিনেশন করতে প্রয়োজন প্রায় ৮০,০০০ কোটি টাকা।