Bhopal: ব্যাঙের বিয়ে দিয়ে বৃষ্টি চাওয়া হয়েছিল, অত্যধিক বৃষ্টির জ্বালায় এবার সেই ব্যাঙ যুগলের ডিভোর্স দেওয়া হল
বৃষ্টি চেয়ে ব্য়াঙের বিয়ে। (Photo Credits: Video grab)

ভোপাল, ১২ সেপ্টেম্বর: ব্যাঙ (Frog)-এর বিয়ে দিলে যদি বৃষ্টি হয়, তাহলে সেই ব্যাঙেদের ডিভোর্সে নিশ্চয় বৃষ্টি থামবে। ভোপালবাসীর এই বিশ্বাসে নেটিজেনরা খুব হাসছে। ব্যাপারটা একটু খুলে বলা যাক। মাস দুয়েক আগে মধ্যপ্রদেশের খরার মধ্যে থাকা ভোপালে বৃষ্টি আনার জন্য ব্যাঙের বিয়ে দেওয়া হয়েছিল। প্রচন্ড গরমে অতিষ্ট স্থানীয় বাসিন্দারা গত ১৯ জুলাই ব্যাঙের বিয়ে দিয়েছিলেন বৃষ্টি আনার জন্য। বিশ্বাস, ব্যাঙের বিয়ে দেখে ইন্দ্রদেবকে খুশি হয়ে খরা প্রবণ ভোপালে বৃষ্টি এনে দেবেন।

আবহাওয়া দফতররে পূর্বাভাস মিলিয়ে জুনের শেষের দিকে বর্ষা ঢোকে মধ্যপ্রদেশে। এরপর মধ্যপ্রদেশের বিভিন্ন অংশের মত ভোপালেও প্রবল বৃষ্টিপাত চলছে। গড় বৃষ্টির চেয়ে চলতি বছর মধ্যপ্রদেশে ২৬ শতাংশ বেশি বৃষ্টি হয়েছে। গত রবিবার ভোপালে এত বৃষ্টি হয় যে, একদিনের বৃষ্টিতে গত ১৩ বছরের রেকর্ড ভেঙে যায়। সেই থেকে বৃষ্টি চলছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ভোপালে ৪৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। আর এতে বন্যা পরিস্থিতির তৈরি হয়েছে। আরও পড়ুন-লাগাতার ধর্ষণ ও যৌন হেনস্তায় অভিযুক্ত বিজেপি নেতা চিন্ময়ানন্দ নগ্ন মহিলার ভিডিওতে মগ্ন, চাঞ্চল্যকর ভিডিও ফাঁস সোশ্যাল মিডিয়ায়

আর তাই যারা ব্যাঙের বিয়ে দিয়ে বৃষ্টি আনার প্রার্থনা করেছিলেন। তারাই সেই ব্যাঙ দুটোর মধ্যে ডিভোর্স দিয়ে বৃষ্টি থামানোর প্রার্থনা জানাল। ইন্ডিয়া টুডে-র খবর অনুযায়ী, ভোপালে এক অনুষ্ঠানের রীতিমত মন্ত্র পরে ব্যাঙ দুটির ডিভোর্স করানো হয়। যে সংগঠন ব্যাঙের বিয়ে ও ডিভোর্স দুই দিয়ে বৃষ্টির আনা, আর থামানোর জন্য পুজো করল তাদের দাবি, এবার ভোপালে বৃষ্টি কমবে।

প্রসঙ্গত, চলতি বছর কর্নাটকে বর্ষা শুরু হতে দেরি হওয়ায় সেখানেও ব্যাঙের বিয়ে দিয়ে পুজো হয়েছিল। কর্নাটকে প্রবল বর্ষণে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গাতেও বন্য়া হয়েছে। এবার সেখানেও ব্যাঙের ডিভোর্স  দেওয়া হয় কি না সেটাই দেখার।