Uttar Pradesh: বাড়ির সামনে যত্রতত্র থুতু ফেলতে নিষেধ করেছিলেন, প্রতিবেশির ১১টি পায়রাকে হত্যা করে রাগ মেটালো যুবক
১১টি মৃত পায়রা (Photo CRedits: @RaiSandeepTOI)

বাঘপত, ২৯ সেপ্টেম্বর: করোনা সংক্রমণে দিশেহারা দেশ। এই পরিস্থিতিতে তাঁর বাড়ির সামনে বার বার থুতু ফেলতে থাকায় প্রতিবেশী যুবককে নিষেধ করেছিলেন এক ব্যক্তি। এই ঘটনায় নিতান্তই অপমানিত বোধ করে ওই যুবক। অপমানের প্রতিশোধ নিতে প্রতিবেশীর পোষ্য ১১টি পায়রাকে হত্যা করল সে (Youth Kills 11 Pigeons)। গোটা ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে উত্তরপ্রদেশের বাঘপত এলাকায়। প্রতিবেশী ব্যক্তির নাম ধরমপাল সিং। তাঁর বাড়ির পাশেই থাকে অভিযুক্ত যুবক রাহুল সিং। সে ধরমপাল সিংয়ের বাড়ির ছাদে উঠে খাঁচাবন্দি ১১টি পায়রাকে পাথরের ঘায়ে হত্যা করেছে। বিষয়টি জানাজানি হতেই মৃত পায়রাদের একটি ভিডিও তুলে তানিয়েই স্থানীয় থানায় রাহুল সিংয়ের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ দায়ের করেন ধরমপাল সিং। আরও পড়ুন-Brain-Eating Amoeba: টেক্সাসের জলে বাসা বেঁধেছে মগজখেকো অ্যামিবা, মৃত্যু নাবালকের

এদিকে দুষ্কর্ম করে পলাতক খুনে রাহুল সিং। এই প্রসঙ্গে ধরমপাল সিং সাংবাদিকদের বলেন, মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে দেশজুড়ে যত্রতত্র থুতু ফেলা নিষিদ্ধ হয়েছে। এদিকে রাহুল যখন তখন তাঁর বাড়ির সামনে থুতু ফেলতে থাকে। সংক্রমণের ভয়ে তাকে বেশ কয়েকবার নিষেধ করেও কোনও ফল হয়নি। একদিন রাহুলকে একটু বকাঝকাই করেন তিনি। এই ঘটনায় অপমানিত বোধ করে রাহুল সিং। এই অপমানের প্রতিশোধ নিতেই সোমবার ধরমপালের ১১টি পায়রাকে পাথর মেরে হত্যা করে সে। এই ঘটনায় বাঘপত থানার সার্কেল অফিসার ওমপাল সিং বলেন, বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইনের আওতায় একা মামলা রুজু হয়েছে। পলাতক অভিযুক্তের খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশি।