Earthquake In Jammu & Kashmir: সাতসকালেই ভূমিকম্প, এবার কেঁপে গেল জম্মু কাশ্মীরের শ্রীনগর
ভূমিকম্প(Photo Credits: PTI)।

শ্রীনগর, ৯ জুন: রাজধানীর পর এবার জম্মু ও কাশ্মীর। মঙ্গলবার সকাল আটটা বেজে ১৬ মিনিটে কেঁপে উঠল শ্রীনগর (Srinagar)। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৩.৯। কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের সরকারের বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তর জানিয়েছে, ভূকম্পনের উপকেন্দ্র শ্রীনগরের থেকে ১৪ কিলোমিটার উত্তরে। গান্ডেরবাল এলাকার সাত কিলোমিার দক্ষিণ পূর্বে এই ভূকম্পনের উপকেন্দ্র। তবে এই কম্পনের ফলে এখনও পর্যন্ত কোনও ক্ষয়ক্ষতি ও হতাহতের খবর মেলেনি।

এর আগে সোমবার দিল্লি, দিল্লি এনসিআর ও হরিয়ানায় বেশকিছু অংশে মৃদু কম্পন অনুভূত হয়। ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমোলজির রিপোর্ট অনুসারে রিখটার স্কেলে এই ভূকম্পনের মাত্রা ছিল ২.১। তার আগে গত শুক্রবার  সাতসকালেই জোড়া ভূমিকম্পে (earthquake) কাঁপল কর্ণাটক ও ঝাড়খণ্ড। এদিন সকালে ৬টা বেজে ৫৫ মিনিটে কেঁপে ভূকম্পন অনুভূত হয় কর্ণাটকের হাম্পিতে। রিখটার স্কেলে কম্পনের তীব্রতা ছিল ৪.০।  ওই একই সময়ে কেঁপে যায় ঝাড়খণ্ডের জামশেদপুর। রিখটার স্কেলে কম্পনের তীব্রতা ৪.৭। তবে দুই জায়গাতেই বড়সড় কম্পন অনুভূত না হওয়ায় ক্ষয়ক্ষতির কোনও খবর নেই। সম্প্রতি গত কয়েকমাস ধরে দিল্লি এনসিআর একের পর এক মৃদু ভূকম্পন দেখছে। সাধারণত রিখটার স্কেলে সেই কম্পনের তীব্রতা ২ বা ৩ ম্যাগনিচিউডের বেশি হয় না। আরও পড়ুন-West Bengal Monsoon: নিম্নচাপের অভিমুখ ওড়িশার দিকে, গরম কাটিয়ে এখনই বর্ষা আসছে না বঙ্গে

পরিসংখ্যান বলছে, চলতি বছরে ১২ এপ্রিল থেকে ৩ জুনের মধ্যে মোট ১১টি ভূকম্পন অনুভূত হয়েছে দিল্লি এনসিআর-এ। সবথেকে বেশি ভূকম্পনের রেকর্ড রয়েছে মে মাসে। ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমোলজির রেকর্ড বলছে, ছ'টি ভূমিকম্পের মধ্যে গেল ২৯ মে-র কম্পন মাত্রাই সবথেকে শক্তিশালী ছিল। যদিও রিখটারে তা মাঝারি মাত্রার কম্পন। তীব্রতা ছিল ৪.৫। গত ৫৩ দিনের মধ্যে ১২ এপ্রিলই ছিল প্রথম কম্পন। যার তীব্রতা ধরা পড়ে ৩.৫। পরদিন ১৩ এপ্রিলের কম্পন তীব্রতা ছিল ২.৭। ১০ ও ১৫ মে যথাক্রমে ৩.৪ ও ২.২ মাত্রার দু'টি ভূমিকম্প হয়।