Namaz In Church: চার্চে বসেই নামাজ পড়লেন কেরালার মুসলিমরা!
চার্চ (Photo Credits: ANI)

তিরুবনন্তপুরম, ৩০ ডিসেম্বর: দেশজুড়ে কেন্দ্রের নয়া সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (CAA) বিরোধিতায় বিক্ষোভ চলছে। ছাত্র যুব থেকে বিরোধী রাজনৈতিক দল এবং আমজনতা রাস্তায় নামতে বাকি নেই কেউই। বিক্ষোভে উত্তাল গোটা দেশ (India)। কিন্তু দেশজোড়া এই হিংসার অ্যালবামে এ যেন ভিন্ন ছবি। কেরালার (Kerala) কোথামঙ্গলমের চার্চ যেন রঙ-তুলি ধরা শেখাল ঝলসানো বিবর্ণতার ক্যানভাসে। মুসলিমদের নামাজ পড়ার জন্য দরজা খুলে দিলেন ওই চার্চ কর্তৃপক্ষ। নাগরিকত্ব ইস্যুতে উত্তপ্ত ভারতের এক কোণে এ যেন সম্প্রীতির শঙ্খধ্বনি।

জানা গিয়েছে, গতকাল রবিবার নাগরিকত্ব ইস্যুতে একটি মিছিলে পা মিলিয়ে ছিলেন কয়েকজন মুসলিম (Muslim)। মিছিল এগোতেই সন্ধ্যে নেমে আসে। সময় হয়ে আসে নামাজ পাঠের। কিন্তু এমন জায়গায় তখন মিছিল দাঁড়িয়ে, যে কাছেপিঠে কোথাও খুঁজে পাওয়া যায়নি মসজিদ। এমন সময় এগিয়ে আসে ওই এলাকায় থাকা একটি চার্চের (Church) কর্তৃপক্ষ। নামাজে বসতে চাওয়া মুসলিমদের জন্য খুলে দেওয়া হয় স্থানীয় এক গির্জার দরজা। নামাজ পড়েন ধর্মপ্রাণরা। ডেকান হেরলডের খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে, ওই চার্চের নাম সেন্ট থমাস চার্চ। আর এই পরিস্থিতিতে এমন ঘটনা রীতিমতো সাড়া ফেলে দিয়েছে। শুধু নামাজ পাঠের জন্যই নয়, কেরালর এই চার্চে স্বয়ং প্রিস্ট এসে প্রার্থনাকারীদের প্রয়োজনীয় জল এনে দেন। আরও পড়ুন: Anti-Citizenship Amendment Act Protests: সিএএ-র গালে সজোরে থাপ্পড়, জামিয়ার গেটের বাইরে নামাজ পড়লেন ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা; তাঁদের মানব বন্ধনে ঘিরে রাখলেন দিল্লির অমুসলিম বাসিন্দারা (দেখুন ভিডিও)

দিন দশেক আগে এমন ঘটনা ঘটেছিল দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (Jamia Millia Islamia University) সদর দরজার সামনে। সেদিন দুপুরের বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটের সামনেই বসে নামাজ (Namaz) পড়েছিলেন ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা। তাঁদের উপর যাতে কোনওরকম আক্রমণের আঁচ না আসে সেজন্য মানব বন্ধনে (human chain) তাঁদের ঘিরে রাখার ব্যবস্থাও করেছিলেন রাজধানীর অমুসলিম বাসিন্দারা।