৫০০ কোটির বাজেট, ঝাঁ চকচকে থ্রিডির মোড়কে মাল্টিপ্লেক্সে ফিরছে শৈশবের রামায়ণ
রামায়ণ ছবির মূল কর্মকর্তারা (Photo Credit: Twitter)

মুম্বই, ৯ জুলাই: রামায়ণ, এটুকু শুনলেই মনে হয় ঠাকুমার কাছে গল্প শুনছি। এবার যদি সেই গল্প মাল্টিপ্লেক্সে গিয়ে দেখতে হয় তাহলে তো আনন্দ ধরবে না তা বলাই বাহুল্য। তবে সুখবরটা দিয়ে দেওয়াই যাক, রুপোলী পর্দায় আসতে চলছে রামায়ণ। একে বারে বিগ বাজেট, ৫০০ কোটির বাজেটের মহাভারত আসলে থ্রি-ডি মুভি। তিনটি পার্টে মুক্তি পাবে। হিন্দি, তামিল ও তেলেগু ভাষায় রামায়ণ খুব কিছুদিনের মধ্য়েই মাল্টিপ্লেক্স মাতাবে। তাই শৈশবের স্মৃতি ঝাঁকিয়ে নিতে সবাই প্রস্তুত থাকুন। এত বড় প্রজেক্ট, বিগ বাজেট, (Big Budget) কাস্টিংও হাইফাই হবে বোঝা যাচ্ছে, তবে ঠিক কারা রয়েছেন প্রচ্ছন্নে তা জানতে হলে অপেক্ষা করতেই হবে। আরও পড়ুন-Kangana Ranaut: সাংবাদিকের সঙ্গে পায়ের ওপর পা তুলে ঝামেলা কঙ্গনা রানওয়াতের (দেখুন ভিডিও)

জানা গিয়েছে, এই রামায়ণের প্রোডাকশনে বলিউডের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে থাকছেন তেলেগু ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম বিখ্যাত অল্লু অরবিন্দ, ফ্যান্টম ফিল্মসের প্রতিষ্ঠাতা মধু মান্টেনা এবং প্রাইম ফোকাস স্টুডিও-র প্রতিষ্ঠাতা নমিত মালহোত্রা। এই তিনটি প্রোডাকশন হাউসের কর্তারা একসঙ্গে প্রযোজনা করবেন বিগ বাজেটের ‘রামায়ণ’। পরিচালনায় থাকবেন দুই বলিউড পরিচালক নীতীশ তিওয়ারি (Nitesh Tiwari) এবং রবি উদয়ওয়ার (Ravi Udyawar)। ইতিমধ্যেই ‘দঙ্গল’ ছবির জন্য নীতীশ এবং শ্রীদেবীর কামব্যাক ফিল্ম ‘মম’-এর দৌলতে রবি বি-টাউনের পরিচিত নাম।নীতীশ এবং রবি। দু’জন পরিচালকই বলছেন, এ ছবির সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে তাঁদের ছোটবেলার নানান স্মৃতি। রয়েছে ভরপুর আবেগও। নিজের হাতে শৈশবের শোনা গল্পকে সিনেমায় রূপ দেওয়া বড় পাওনা বলে মনে করছেন নীতিশ।

এদিকে ছবির নাম রামায়ণ(Ramayana) বলে ভয় পাওয়া উচিত কি না তানিয়ে কথাই বললেন না দুজন। তবে কাজটি নিয়ে তাঁরা খুবই আত্মবিশ্বাসী। ভাল কিছুই যে হতে চলেছে তানিয়ে আশাবাদী দুই পরিচালক জানালেন বিগ বাজেটের ছবিতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তিকে কাজে লাগানো হবে। সময় লাগলেও জান প্রাণ ঢেলেই হবে প্রজেক্টের কাজ। কোথাও যেন একবিন্দুও খামতি না থাকে। ২০২০-তে সম্ভবত সেলুলয়েডে মুক্তি পেতে চলেছে বিগ বাজেটের রামায়ণ, ততক্ষণ শুধুই অপেক্ষা।