Vivek Oberoi-Meme Row: সলমন খান, ঐশ্বর্য রাই, অভিষেক বচ্চনের মিম শেয়ার করে সমালোচিত বিবেক ওবেরয়
নিম্নরুচির মিম শেয়ার করে সমালোচিত বিবেক ওবেরয়। ((Photo Credits: ANI))

মুম্বই, ২০ মে:  বলিউডের অন্যতম সেরা সুন্দরী ঐশ্বর্য রাই বচ্চন ( (Aishwarya Rai Bachchan)-এর ব্যক্তিগত জীবনকে ভোটের ফলের সঙ্গে জড়িয়ে তীব্র সমালোচিত হলেন  বিবেক ওবেরয় (Vivek Oberoi)। ঐশ্বর্য রাইয়ের সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে বলিউডের তিনজন নায়কের ব্যক্তিগত সম্পর্ক নিয়ে জল্পনা হয়। সলমন খান (Salman Khan), অভিষেক বচ্চন ((Abhishek Bachchan)-র পাশাপাশি অ্যাশের প্রেম কাহিনিতে বিবেক ওবেরয়-এরও নাম ছিল। ঐশ্বর্যার তিন প্রেমিককে তিনভাবে ব্যাখা করে ওপিনিয়ন পোল, এক্সিট পোল ও ভোটের ফলের ফারাক বোঝান বিবেক। সলমনের সঙ্গে ঐশ্বর্যের সম্পর্কে বিবেক বলেন-ওপিনিয়ন পোল হিসেবে। তাঁর সঙ্গে অ্য়াশের সম্পর্ককে বোঝান এক্সিট পোল হিসেবে। আর অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে ঐশ্বর্যের বিবাহিত সম্পর্কটাকে ভোটের ফল হিসেবে অ্যাখা দেন বিবেক। সেই ছবিতে অভিষেক-অ্যাশের সঙ্গে তাদের মেয়েও ছিল।  আর এই মিম তার টুইটারে পোস্ট করে তীব্র সমালোচিত হলেন বিবেক। সোনম কাপুর তো এইজন্য প্রকাশ্য়ে বিবেককে ইডিয়েটও বলেন। মহিলা কমিশনের নোটিশও এল বিবেকের কাছে।

নিজের বলিউডে কামব্যাকে নরেন্দ্র মোদীকে বাজি ধরেছেন । প্রধানমন্ত্রীর আত্মজীবনীমূলক সিনেমা 'পিএম নরেন্দ্র মোদী' (PM Narendra Modi)-র মুক্তি ২৪ মে, শুক্রবার। ভোটের ফলপ্রকাশের পরদিন মোদীর ভূমিকায় অভিনয় করা বিবেক ওবেরয় ) বড় পর্দায় কামব্যাক করছেন। ওমুঙ্গ কুমারের এই সিনেমার আত্মপ্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতীন গডকরি। ভোটের মুখে এই সিনেমার রিলিজের কথা থাকলেও, কমিশনের আপত্তিতে তা পিছিয়ে যায়। সিনেমায় নরেন্দ্র মোদী-র উত্থানের কাহিনি দেখানো হয়েছে। সেই সিনেমার মুক্তির আগে সলমন খান, ঐশ্বর্য রাই (Aishwarya Rai), অভিষেক বচ্চন -কে নিয়ে একটা মিম শেয়ার করে ট্রোলড হলেন বিবেক ওবেরয়। লোকসভা নির্বাচনের বুথ ফেরত সমীক্ষার ফলের সঙ্গে সল্লু-অ্যাশের প্রেম কাহিনি জড়ালেন বিবেক।

তাঁর সোশ্যাল মিডিয়ায় মিম-পোস্ট করে বিবেক ঐশ্বর্য রাইয়ের সঙ্গে সলমান খানের সম্পর্ককে ওপিনিয়ন পোল। তাঁর সঙ্গে ঐশ্বর্যের সম্পর্ককে এক্সিট পোল এবং অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে ঐশ্বর্যের বিবাহিত জীবনকে চূড়ান্ত ফলাফল বলে ব্যাখা করেন। পুরনো সম্পর্কের কাদাঘেঁটে বিবেকের এই মিমকে নিম্নরুচির বলে ব্যাখা করছেন নেটিজেনরা।