বিদ্যা বালান বার্তা দিলেন বডি শেমারদের, কারও চেহারা নিয়ে বিদ্রূপ করবেন না
বিদ্যা বালান(Photo Credit: Twitter)

মুম্বই, ৩০ মে:  অভিনয় জগতে কোনও মহিলা যখন নতুন আসছেন, তখন তাঁর অভিনয়কে বাদ রেখেও সমালোচনা হয়। সেই সমালোচনার প্রথম কারণ অবশ্যই তাঁর চেহারা। একটু বেশি মাত্রীয় লম্বা হলে তাঁকে ঢ্যাঙা বলবে, ছিপছিপে বেশি হলে জিরো ফিগার, আর যদি মোটা হয়েছেন তো কথাই নেই তাঁকে নিয়ে নোংরা মিমে ভরে যাবে সোশ্যাল মিডিয়া। নায়িকা মানেই তন্বী যুবতী হতে হবে। অন্য কোনও চেহারা নৈব নৈব চ। এক ভিডিও বার্তায় এবার সেই বডিশেমিং (Body Shaming) নিয়েই মুখ খুললেন অভিনেত্রী বিদ্যা বালান (Vidya Balan)।

ভিডিওটি একদিন আগেই প্রকাশিত হয়েছে, এর মধ্যেই অনুরাগী ও দর্শকমহলে প্রশংসা কুড়িয়েছে নায়িকার বক্তব্য। ভারতীয় সমাজে মহিলারা যে তাঁদের চেহারার জন্য ঘরে বাইরে সমালোচনা, ধিক্কার, টিটকিরির শিকার হন প্রতিনিয়ত, তাই মনে করিয়ে দিয়েছেন বিদ্যা। বার বার বলেছেন, মোটা বা রোগা বলে কাউকে দাগিয়ে দেবেন না, প্রত্যেকটা মানুষই একেবারে নিজের মতো করে তৈরি হয়। তাই তো প্রত্যেকেই ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ, কেউই কারোর ফোটোকপি নয়। সবাই আলাদা, কেউই অন্যদের পছন্দের আঙ্গিকে তাঁর চেহারা বদলাবেন না, সেটা কখনওই কাম্য নয়। আর এভাবে কাউকে তাঁর চেহারা নিয়ে বারবার কথা শোনালে আত্মবিশ্বাস তলানিতে এসে ঠেকে। সেই মানুষটার ভাবনা চিন্তার ক্ষমতা লোপ পায়। সে শুধু নিজেকে একটা হেরে যাওয়া সমাজের প্রতিনিধি হিসেবে দেখতে শুরু করে। এটি তাঁর অপরাধ নয়, অপরাধ হল আপনাদের, যারা তাঁকে নিজের সম্পর্কে ভাবতে বাধ্য করেছে। ভিডিওতে অভিনেত্রী বিভিন্ন জনপ্রিয় হিন্দি গানের অনুকরণে বিষয়টি তুলে ধরেছেন। সঙ্গে মর্মস্পর্শী অভিনয় অনুরাগীদর মন জয় করে নিয়েছে।

উল্লেখ্য, হিন্দি ছবির দুনিয়ায় একের পর এক হিট এনে দিলেও বিদ্যা বালান কিন্ত কোনওভাবেই তন্বী নায়িকা সেজে নিজেকে প্রকাশ করেননি। ভারতীয় মহিলার নিটোল সৌন্দর্যই তাঁর বরাবরের ইউএসপি। এজন্য বি-টাউনে পা দিয়ে তাঁকে কেমন বড়িশেমিংয়ের মুখোমুখি পড়তে হয়েছে, সেকথা আর নাই বা বললাম। মোটা গড়নের কারণে সোশ্যাল মিডিয়াতে তাঁকে নিয়ে নোংরা মিম হয়েছে প্রচুর। তবুও দমে যাননি তিনি, আত্মবিশ্বাসকে টলতে দেননি। কারোর কথায় না খেয়ে জিরো ফিগার তৈরির চেষ্টাও করেননি। বরং ডার্টি পিকচার ছবির জন্য আরও ওজন বাড়িয়েছেন। যাঁরা বডিশেমিংয়ের শিকার তাঁদের উদ্দেশ্যে নায়িকার একটাই বার্তা, নিজের মতো করেবাঁচুন। চেহারা নিয়ে কে কি বলল পাত্তা দেবেন না। আর বডিশেমারদের বললেন, প্রত্িটা মানুষ একেবারেই আলাদা, যে যার নিজের মতো। তন্বী সুন্দরীর ছাঁচে ফেলে সবার বিচার করবেন না।