Kangana Ranaut Slap Row: আইন হাতে তুলে নেওয়া সমর্থনযোগ্য নয়, চড়কাণ্ডে কঙ্গনার পাশে শাবানা
Shabana Azmi, Kangana Ranaut (Photo Credits: X)

নয়া দিল্লি, ৮ জুনঃ বলিউড অভিনেত্রী তথা সদ্য নির্বাচিত বিজেপির সাংসদ কঙ্গনা রানাউতকে (Kangana Ranaut) চড় মারার অভিযোগ ওঠে সিআইএসএফ-এর এক মহিলা কনস্টেবলের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার চণ্ডীগড় বিমানবন্দরের ঘটনায় তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। কৃষকদের বিরুদ্ধে অসম্মানজনক মন্তব্য করার প্রতিবাদ জানিয়ে অভিনেত্রীকে চড় মেরেছিলেন বলে জানান বিমানবন্দরের ওই নিরাপত্তারক্ষী কুলবিন্দর কউর (Kulwinder Kaur)। ঘটনার পরেই সিআইএসএফ-এর ওই জওয়ানকে চাকরি থেকে সাসপেন্ড করে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। চড়কাণ্ড প্রকাশ্যে আসতেই অভিনেত্রীকে নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ শুরু করেন তাঁর অনুরাগীরা। কঙ্গনার চড়কাণ্ড নিয়ে এবার মুখ খুললেন প্রবীণ অভিনেত্রী শাবানা আজমি (Shabana Azmi)। জানালেন, আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়া নিরাপত্তাকর্মীর উচিৎ হয়নি।

বিমানবন্দরে কঙ্গনা রানাউতের চড়কাণ্ড (Kangana Ranaut Slap Row) নিয়ে প্রায় চুপ রয়েছে বলিউড ইন্ডাস্ট্রি। যা নিয়ে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন অভিনেত্রী। তবে এক সময়ে স্বামী তথা গীতিকার জাভেদ আখতারের সঙ্গে বিতর্কে জড়ানো কঙ্গনার পাশে দাঁড়ালেন স্ত্রী শবানা আজমি (Shabana Azmi)। অভিনেত্রীকে চড় মারার ঘটনার তীব্র নিন্দা করলেন তিনি। এক্স হ্যান্ডেলে শাবানা লিখলেন, 'কঙ্গনার প্রতি আমার স্নেহ হারিয়ে যায়নি। এই চড়ের যে উদযাপন করা হচ্ছে আমি তাতে সামিল হতে পারছি না। নিরাপত্তাকর্মীরাই যদি আইন হাতে তুলে নেয় তাহলে আমরা কেউই নিরাপদ থাকতে পারব না'।

শাবানার টুইট... 

২০২১ সালে কৃষক আন্দোলনকে ঘিরে একাধিক অসম্মানজনক মন্তব্য করেছিলেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। যার প্রতিবাদ হিসাবে এদিন বিমানবন্দরে সদ্য নির্বাচিত সাংসদকে থাপ্পড় মারেন সিআইএসএফ-এর ওই মহিলা জওয়ান। দেশের কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়ে কুলবিন্দরের এহেন আচরণকে 'সাহসিকতা' তকমা দিয়ে প্রশংসা করেছেন নেটিজেনদের একাংশ। তেমনই গায়ে হাত তোলাকে চরম নিন্দার চোখে দেখে ঘটনার তুমুল সমালোচনাও চলছে। কুলবিন্দরের পাশে দাঁড়িয়ে বলিউড সুরকার বিশাল দদলানি তাঁকে চাকরির প্রস্তাব দিয়েছেন। এক্স হ্যান্ডেলে বিশাল লেখেন, 'আমি হিংসা সমর্থন করি না। কিন্তু ওই মহিলা জওয়ানের রাগের কারণ বুঝতে পারছি। যদি CISF তাঁর জন্যে কোনও ব্যবস্থা না নেয়। আমি কথা দিচ্ছি, তাঁর জন্য একটি চাকরি অবশ্যই রইল, যদি তিনি তা করতে ইচ্ছুক হন। জয় হিন্দ, জয় জওয়ান, জয় কিষাণ।'