Gunjan Saxena - The Kargil Girl Movie Review: বায়ুসেনায় ভারতের প্রথম মহিলা পাইলটের বায়োপিকে জাহ্নবী, দেখে নিন মুভি রিভিউ
Gunjan Saxena – the Kargil Movie Review (Photo Credit: Netflix)

গুঞ্জন সাক্সেনা- দ্য কারগিল গার্ল, বায়ুসেনায় ভারতের প্রথম মহিলা পাইলট, যিনি ১৯৯৯ সালে কারগিলের যুদ্ধক্ষেত্রে প্রবেশ করেছিলেন, তাঁকে ঘিরেই ছবির গল্প। শরণ শর্মার পরিচালনায় করণ জোহরের ধর্মা প্রোডাকশনের প্রযোজনায় ছবির লিড রোলে রয়েছেন জাহ্নবী কাপুর। গুঞ্জন সাক্সেনার চরিত্রে রয়েছেন জাহ্নবী। বনি কাপুর এবং প্রয়াত শ্রীদেবীর বড় মেয়ে তিনি। ধড়ক ছবি দিয়ে সিনে দুনিয়ায় হাতেখড়ি জাহ্নবীর। ঘোষ্ট স্টোরিজে অভিনয়ে চমকে দেন অভিনেত্রী। এবার গুঞ্জন সাক্সেনা- দ্য কারগিল গার্ল। পরপর তিনটি ছবিতেই নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়েছেন বনি-কন্যা।

জাহ্নবী কাপুর ছাড়াও ছবির অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে রয়েছেন পঙ্কজ ত্রিপাঠি, অঙ্গদ বেদি, বিনীত কুমার সিং, আয়েশা রাজা মিশ্রস মানব ভিজ। ১২ অগাস্ট থেকে নেটফ্লিক্সে শুরু হবে ছবির স্ট্রিমিং। ছবির গল্প গুঞ্জনকে ঘিরেই, ছোট থেকেই আকাশ ওড়ার স্বপ্ন দেখত সে, আর সেই স্বপ্ন বাস্তব রূপ পায় অবশেষে, কারগিল যুদ্ধেও একমাত্র মহিলা পাইলট হিসেবে সামিল হন তিনি। শরণ শর্মার প্রথম ছবি এটি। সালটা ছিল ১৯৮৪। বিমানযাত্রার সময় ভাইয়ের সঙ্গে জানলার ধারের সিট নিয়ে লড়াই। অবশেষে, তাঁকে ককপিটে নিয়ে যান বিমানসেবিকা (যদিও সেই সময় আদৌ এটা করা হত কিনা জানা নেই)। আকাশের অপরূপ সৌন্দর্য দেখে প্রেমে যান ছোট্ট গুঞ্জন।

সেই থেকে স্বপ্ন দেখা শুরু। গুঞ্জনের মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন আয়েশা রাজা মিশ্র এবং বড় ভাইয়ের চরিত্রে অঙ্গদ বেদি (চরিত্রের অবদান ছাপ ফেললেও স্ক্রিন প্রেজেন্স ছিল সামান্য) বরাবরই গুঞ্জনের আকাশে ওড়ার স্বপ্নের ইচ্ছের বিরুদ্ধে ছিলেন। শুধুমাত্র গুঞ্জনের বাবা (পঙ্কজ ত্রিপাঠি) মেয়ের ইচ্ছেকে সমর্থন জানিয়েছিলেন বারবার।

এক অসাধারণ ভাবে প্রতিটি ধাপে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে ছবির গল্প, যা দেখে আপনার মুখ দিয়ে মাঝে মধ্যেই 'বাহ' শব্দটি বেরিয়ে আসবেই। এই বায়োপিকে বাবা-মেয়ের সম্পর্ক দেখে কখনও আপনার মন ভাল হয়ে যাবে, আবার কখনও চোখের কোণটা চিকচিক করে উঠবে। জাহ্নবী এবং পঙ্কজ, বাবা-মেয়ের সম্পর্কটাও অসাধারণ ভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে ছবিটিতে। বাবা-মেয়ের সম্পর্ক ছাড়াও উধমপুরের বায়ুসেনার ট্রেনিং ব্যারাকসের দৃশ্য় দেখেও আপনি মুগ্ধ হবেন বারবার। পাশাপাশি লিঙ্গ বৈষম্যতারও ছাপ রয়েছে ছবিটিতে। ছবির ক্লাইম্যাক্সে রয়েছে উদ্ধারকাজে থ্রিলিং, যদিও কারগিল যুদ্ধ দেখা নিয়ে যদি আপনি কিছু আশা করে থাকেন, তাহলে ব্যর্থ হবেন। অমিত ত্রিবেদীও বেশ ভাল কাজ করেছেন ছবিতে। ডেব্যু ছবির থেকে জাহ্নবী কাপুর অভিনয়ে বেশ উন্নতি করেছেন তা বলাই বাহুল্য। ত্রিপাঠির অভিনয় এবং ডায়লগ মনোমুগ্ধকর, ছবির স্ক্রিপ্ট এককথায় দুর্দান্ত। গুঞ্জন সাক্সেনা- দ্য কারগিল গার্ল ছবিটির গল্প খুব সাধারণ হলেও আপনার মন ছুঁয়ে যাবেই এবং ছবিটি আপনাকে উদ্বুদ্ধ করবেই।