Brazilian President Jair Bolsonaro: ফার্স্ট লেডির দূর্নীতি যোগ নিয়ে প্রশ্ন, সাংবাদিককে ঘুষি মারার হুমকি দিলেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট
জাইর বলসোনারো (Photo Credits: IANS)

ব্রাসিলিয়া, ২৪ আগস্ট: সরকারি প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। সেই দুর্নীতিতে প্রেসিডেন্ট পত্নী মিশেল বলসোনারোর নাম জড়িয়েছে। সাংবাদিক সম্মেলনে এনিয়ে কথা পাড়তেই প্রশ্নকর্তা সাংবাদিককে মুখে ঘুষি মারার হুমকি দিলেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো (Jair Bolsonaro)। সংবাদ সংস্থা এএফপি-র রিপোর্ট অনুসারে মারমুখী প্রেসিডেন্ট বলসোনারো ওই সাংবাদিককে বলেন, “আমি তোমার মুখে একটা মারকাটারি ঘুষি মারতে চাই।” প্রতি রবিবার নিয়ম করে ব্রাসিলিয়ার গির্জা মেট্রোপলিটন ক্যাথিড্রালে আসেন প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো। গতকাল রবিবারও সেই নিয়মের কোনও নড়চড় হয়নি। সেখানেই সাংবাদিকের একটি দল প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বার্তালাপে এগিয়ে আসে। নানা কথার ফাঁকে মিশেল বলসোনারোর দুর্নীতি যোগ নিয়ে প্রশ্ন উঠতেই মেজাজ হারান প্রেসিডেন্ট।

এই ঘটনায় অকুস্থলে উপস্থিত অন্যান্য সাংবাদিকরা প্রতিবাদ শুরু করলেও তাতে পাত্তাই দেননি প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো। বরং কোনওরকম বিবৃতি না দিয়ে ঘটনাস্থল ছাড়েন তিনি। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে গত মাসেই ফেসবুক ও টুইটারের মতো সোশ্যাল মিডিয়া প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারোর হাইপ্রোফাইল সমর্থক ও সহায়কদের পোস্ট অদৃশ্য করে দেয়। এই সোস্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলি থেকে বলসোনারোর প্রতিদ্বন্দ্বি রাজনীতিক ও সাংবাদিকদের টার্গেট করা হচ্ছিল। এবং সেখানে নিয়মিতভাবে দেশীয় রাজনীতি ও নির্বাচন নিয়ে পোস্ট চলছিল। আরও পড়ুন-Kim Jong Un ‘Dead’: কোমায় থাকার পর প্রয়াত উত্তর কোরিয়ার স্বৈরাচারী শাসক কিম-জং-উন?

সাংবাদিককে ঘুষি মারার হুমকি দিলেন জাইর বলসোনারো

চলতি মাসের শুরুর দিকে ব্রাজিলের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা যায়, প্রেসিডেন্টের সহায়ক ফ্যাবরি সুকেরস গত ২০১১-১৮ সালের মধ্যে ফার্স্ট লেডি মিশেল বলসোনারোর অ্যাকাউন্টে ৭২ হাজার রেইসের চেক জমা করেছেন। ভারতীয় মুদ্রায় যার পরিমাণ ৯ লক্ষ ৫৮ হাজার ২২৯ টাকা। এদিকে দেশের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত পরিস্থিতি নিয়ে বেশ বিপাকে প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো। কেননা ট্রাম্পের বন্ধ বলসোনারো কোভিড-১৯ ভাইরাসকে খুব একটা গুরুত্ব দেননি। এমনকী, কোয়ারেন্টাইনে থাকা, সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে চলা, মাস্ক পরার বিষয়ে বিদ্রূপ করেছেন রীতিমতো। গতমাসে তিনি করোনায় আক্রান্ত হন। পর পর কয়েকবার তাঁর টেস্ট রিপোর্ট কোভিড-১৯ পজিটিভ আসে। সুস্থ হওয়ার পর বলসোনারো জানান, প্রত্যেকেই কোনও না কোনও সমে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হবেন। সুতরাং এর মুখোমুখি হওয়ার জন্য তৈরি থাকুন।