West Bengal Post-Poll Violence: রাজ্যকে নোটিস দিল সুপ্রিম কোর্ট, সিটের দাবিতে শীর্ষ আদালতে বিজেপি কর্মীর পরিবার
সুপ্রিম কোর্টের ফাইল ছবি (Photo Credit: IANS)

কলকাতা, ১৮ মে: ভোটে পরবর্তী হিংসার ( West Bengal Post-Poll Violence) দুটি ঘটনায় নিয়ে দেশের শীর্ষ আদালতের (Supreme Court) নোটিশ পেল রাজ্য সরকার। কাঁকুড়গাছির বিজেপি কর্মী অভিজিৎ সরকার (Abhijit Sarkar) ও সোনারপুরের হারান অধিকারী (Haran Adhikari) র 'ভোট পরবর্তী হিংসা'য় মৃত্যু নিয়ে রাজ্য সরকারকে এই নোটিশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। বিজেপি পরিবারের আবেদনের ভিত্তিতে আদালত জানতে চেয়েছে, বিশেষ তদন্তকারী দল (SIT) গঠনের বিষয়ে কী ভাবছে রাজ্য সরকার। এমনিতে ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে তৃণমূল সরকারকে কোণঠাসা করছে বিজেপি। আরও পড়ুন: Baishakhi Banerjee: ডুকরে কেঁদে উঠলেন বৈশাখী ব্যানার্জি, রাতে জেলের ফটকে চাপড়

দিল্লিতে পশ্চিমবঙ্গের ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন বিজেপি-র কেন্দ্রীয় নেতারা। ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের জেলা সফর আলাদা মাত্রা যোগ করেছে। তারপর সুপ্রিম কোর্টের নোটিশ নিয়ে অস্বস্তিতে রাজ্য সরকার। ২ মে রাজ্য বিধানসভার ভোটের ফলপ্রকাশের পর কাঁকুড়গাছির বিজেপি কর্মী অভিজিৎ সরকারকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

মৃতের পরিবার অভিযোগ করে, গলায় তার পেঁচিয়ে এবং পিটিয়ে খুন করা হয় অভিজিৎ সরকারকে। এর পাশাপাশি সোনারপুর দক্ষিণ বিধানসভার প্রতাপনগরের মেটিয়ারিতেও বিজেপি কর্মী হারান অধিকারীকে খুনের অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। রাজ্য পুলিসের তদন্তে ক্ষুব্ধ হয়ে নিরপেক্ষ তদন্তের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় এই দুই বিজেপি পরিবার। শীর্ষ আদালতে তারা জানায় রাজ্য পুলিসের ওপর তাদের ভরসা নেই'। মঙ্গলবার তাঁরা বিশেষ তদন্তকারী দলের দাবিতে মামলা করে। তাঁদের বক্তব্য শোনার পর, এই মামলার একটি করে কপি কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারকে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। আগামী মঙ্গলবার হবে মামলার পরবর্তী শুনানি।