গণতন্ত্র দিবসে মমতা ব্যানার্জির মুখে 'সুপার এমারজেন্সি'-র কথা, টুইটে স্বাধীনতারক্ষার শপথ তৃণমূল সুপ্রিমোর
মমতা ব্যানার্জি (Photo Credits PTI)

কলকাতা, ১৫ সেপ্টেম্বর : আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবসে (International Day of Democracy) কেন্দ্রীয় সরকারকে আক্রমণ মমতা ব্যানার্জির (Mamata Banerjee)। এনিয়ে তিনি টুইট করেছেন। দেশে 'সুপার এমারজেন্সি' (Super Emergency) চলছে বলে ফের অভিযোগ করলেন তিনি ৷ দেশের সাংবিধানিক কাঠামো অক্ষুণ্ণ রাখার জন্য অঙ্গীকারবদ্ধ হতে সাধারণ মানুষকে আহ্বানও জানান তিনি। টুইটে মমতা ব্যানার্জি লেখেন, "আজ আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবসে আসুন আমরা সকলে আমাদের দেশের সাংবিধানিক পরিকাঠামোকে অক্ষুণ্ণ রাখার অঙ্গীকার নিই। এই ‘সুপার এমারজেন্সি’-র জমানায় মানুষের সাংবিধানিক অধিকার ও স্বাধীনতা রক্ষার জন্য যা যা করতে হবে আমরা তা অবশ্যই করব৷"

 

নোটবাতিল, NRCসহ নানা ইস্যুতে মমতা ব্যানার্জি কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভপ্রকাশ করেছেন। তাঁর অবিযোগ, নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) সরকার বিভিন্ন সময়ে সংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নিয়েছে। বিরোধী দলের নেতাদের প্রতি রাজনৈতিক প্রতিহিংসা থেকে নান সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। তাছাড়া নতুন ট্রাফিক আইন পশ্চিমবঙ্গে চালু করবেন না বলেও জানিয়ে দিয়েছেন মমতা ব্যানার্জি। এর আগে ISRO-র অফসে বসে থাকার জন্য নরেন্দ্র মোদির কড়া সমালোচনা করেন তিনি। তিনি বলেন, "হঠাৎ, তিনি সেখানে গিয়েছেন। এখন আগামী চার দিনের জন্য চন্দ্রায়নের বিষয়টি খবরে বজায় থাকবে। যেন তারা (বিজেপি) সমস্ত কিছু করেছে দেশে। যেন তারা বিজ্ঞানের কোনও কিছু উদ্ভাবন করেছে।" আরও পড়ুন : Doordarshan turns 60: ভারতীয় টিভির স্বর্ণযুগ উপহার দেওয়া দূরদর্শন শুধু নস্টালজিয়ায় বন্দি থাকতে নারাজ

 

মমতার টুইটের জবাবে উত্তরপ্রদেশের বিজেপি (BJP) বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং বলেন, ""মনে হচ্ছে মমতা ভুলে যাচ্ছেন যে খারাপ দিন তাঁর কাছে আসছে। তাঁর উচিত ভাষা এবং আচরণ বদলানো। অন্যথায় কংগ্রেস নেতা পি চিদম্বরমের মতো একই পরিণতির মুখোমুখি হবেন তিনি।"