Kolkata: বিদ্যুৎ নেই, জল নেই; রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বিক্ষোভ-রাস্তা অবরোধ
(Photo: Facebook)

কলকাতা, ২৩ মে: আম্ফান ঘূণিঝড়ের (Cyclone Amphan) তাণ্ডবে টানা ৪ দিন বিদ্যুৎহীন থাকায় কলকাতার (Kolkata) একাধিক এলাকায় জলের জন্য হাহাকার পড়ে গেছে। সমস্যায় বাসিন্দারা। এর জেরেই শহরের একাধিক জায়গায় বিক্ষোভ (Agitation) চলছে, কোথাও কোথাও রাস্তা অবরোধ করা হয়। পুলিশ এসে বুঝিয়ে অবরোধ তুলে দেয়। দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলার বিস্তীর্ণ অংশ বিদ্যুৎহীন। তীব্র সংকট তৈরি হয়েছে পানীয় জলের। সকাল থেকেই বিভিন্ন জায়গায় অবরোধ করেন স্থানীয় মানুষ। উত্তর ২৪ পরগনার টিটাগড়, হাওড়ার চ্যাটার্জি হাট থেকে হুগলির উত্তরপাড়ায় জল ও বিদ্যুতের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে বাসিন্দারা।

সংবাদ প্রতিদিনের খবর অনুযায়ী, উত্তর ২৪ পরগনার খড়দহের কাছে কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়েতে বিক্ষোভকারীদের হঠাতে গিয়ে হামলার মুখে পড়তে হল পুলিশকে। আহত হন একজন সিভিক ভলান্টিয়ার। আগুন ধরিয়ে দেয়া হয় একটি খড় বোঝাই ট্রাকে। দমকলের তিনটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশও পালটা লাঠিচার্জ করে। অন্যদিকে, মহেশতলার কাছে বজবজ ট্রাঙ্ক রোড অবরোধ করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। আরও পড়ুন: Kolkata: আম্ফানের কারণে প্রশাসন ত্রাণের কাজে ব্যস্ত, ২৬ মে পর্যন্ত রাজ্যে ট্রেন না পাঠানোর কথা রেলকে জানাল রাজ্য

এছাড়াও দক্ষিণ কলকাতার গড়ফা, সাঁপুইপাড়া এলাকার বাসিন্দারা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখান। একই পরিস্থিতি দক্ষিণ কলকাতার বিজয়গড়, সূর্যনগর, নেতাজী নগরে। পথ অবরোধ হয় কলকাতার ১১৪, ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডেও। অন্যদিকে হুগলিতেও ছবিটা এক। এদিন সকালে উত্তর-কোতরং পৌরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে স্টেশন অবরোধ করেন স্থানীয় মানুষজন। চাঁপদানি পৌরসভা এলাকায় দ্রুত পরিষেবা স্বাভাবিক করার দাবিতে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন বাসিন্দারা।