ভবানীপুর ক্লাবে বক্সিং রিঙয়েই তারকা বক্সারের মৃত্যু, জ্যোতি প্রধানের মৃত্যুতে শোকের ছায়া
বক্সার জ্যোতি প্রধান। (Photo Credit: Facebook)

কলকাতা, ৪ জুলাই: শহরের বক্সিং রিংয়ে ভয়ানক ট্র্যাজেডি। অনুশীলনের মাঝে বক্সিং রিঙয়েই মারা গেলেন রাজ্যের তারকা বক্সার জ্য়োতি প্রধান (Jyoti Pradhan)। সোমবারই অসম রাইফেলস-এ চাকরিতে যোগ দেওয়ার কথা। তার আগেই অনুশীলনের সময়েই থেমে গেল এক প্রতিশ্রুতিবান বক্সারের পথচলা। ২২ বছরের রাজ্যের এই তারকা বক্সারের মৃত্য়ুতে স্তম্ভিত ক্লাব সভাপতি শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় থেকে রাজ্যের ক্রীড়ামহল।

কীভাবে মৃত্যু হল রাজ্যের অন্যতম সেরা বক্সার জ্যোতি প্রধানের? তাঁর সতীর্থরা জানান, অন্যান্য দিনের মতই খিদিরপুর থেকে সাইকেল ভবানীপুর ক্লাবে এসে বিকেল ৫টায় অনুশীলন শুরু করেন জ্যোতি। যোগেশচন্দ্র চৌধুরী কলেজের কলা বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী জ্যোতি অনুশীলনে একদম ফাঁকি দেন না। আরও পড়ুন-১২ ঘণ্টা টানাপোড়েনের পর স্বাভাবিক ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ ইনস্টাগ্রামেও দেখা যাচ্ছে ছবি

ক্লাবে এসে জ্যোতি নামেন অনুশীলনে। তিন মিনিট করে পরপর দু'বার পাঞ্চিং ব্যাগে ঘুষি মারা অনুশীলন করছিলেন। মাঝে নিয়ম মেনে এক মিনিট করে বিশ্রামও নিচ্ছিলেন জ্যোতি। তৃতীয় বার তিন মিনিট একই অনুশীলন করার পরে বিশ্রাম নিতে গিয়ে জলের গ্লাস তুলে নিয়েছিলেন হাতে। তার পরেই মাটিতে লুটিয়ে পড়েন মেয়েদের সিনিয়র বিভাগে রাজ্য চ্যাম্পিয়ন জ্যোতি। সম্প্রতি বাংলার হয়ে দিল্লিতে জাতীয় প্রতিযোগিতায় প্রতিনিধিত্ব করে আসা জ্য়োতি আর ভাল ফল করতে মরিয়া ছিলেন। কিন্তু শেষ হয়ে গেল সব কিছু।

তাঁর সতীর্থ বক্সার সুরজ সিং সাংবাদিদের জানান, ''মাটিতে লুটিয়ে পড়ার পর জ্যোতির দাঁতে দাঁত লেগে গিয়েছিল। জল গড়িয়ে পড়ছিল মুখের পাশ দিয়ে। ও মাটিতে লুটিয়ে পড়ছে দেখে আমরা সবাই ওকে জল খাওয়াতে চেষ্টা করি। কিন্তু দাঁত খোলা যাচ্ছে না দেখে সঙ্গে সঙ্গে আমরা সবাই মিলে ট্যাক্সি ডেকে হাসপাতালে নিয়ে আসি। তার পরই অচৈতন্য হয়ে পড়েন। অচৈতন্য অবস্থাতেই তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ডাক্তারেরা জানান, জ্য়োতি মারা গিয়েছে।''মনে করা হচ্ছে, হার্ট অ্যাটাকেই মৃত্যু হয়েছে বক্সার জ্য়োতি প্রধানের। গরীব বাড়ির মেয়ে বাংলার অন্যতম সেরা বক্সার দিন গুনছিলেন, কবে পাবেন অসম রাইফেলসে চাকরির চিঠি। কিন্তু তাঁর চাকরি করা হল না। জাতীয় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্নও পূরণ হল না।